শিরোনাম :
রাজশাহীতে গণসমাবেশ সফল করার লক্ষ্যে উপজেলার হাট বাজারে লিফলেট বিতরণ করলেন বিএনপি নেতা উজ্জল কমলগঞ্জে বিদেশি মদসহ আটক ১ ছাত্রীদের শ্লীলতাহানির অভিযোগে এক শিক্ষক আটক বাজারে এল ‘বিশ্বের সবচেয়ে দামি ওষুধ’, এক ডোজের দাম ২৮ কোটি টাকা! সারা দিনে দু’লিটার জল খাওয়ার কি সত্যিই কোনও প্রয়োজন রয়েছে? কী বলছে গবেষণা? শীতের সন্ধ্যায় বন্ধুরা আড্ডা দিতে আসবেন? অল্প খরচে বাড়ি সাজাবেন কী ভাবে? শীত আসতেই পা ফাটতে শুরু করেছে বয়স ১২৬! কী খান, কী পান করেন, ‘রহস্য’ জানতে ভিড় উপচে পড়ল কলকাতার হাসপাতালে যুদ্ধের নয়া অস্ত্র মিলিব্লগার! ‘ভদকা খেয়ে মরলে কেউ খোঁজ রাখে? ছেলে তো দেশের জন্য শহিদ হয়েছে’! রুশ সেনার মাকে পুতিন
ইসির কবর রচনা যাতে না হয় সে জন্য এসেছি: ইসি রফিকুল

ইসির কবর রচনা যাতে না হয় সে জন্য এসেছি: ইসি রফিকুল

মতিহার বার্তা ডেস্ক :  নির্বাচন কমিশনের কমশিনার মো. রফিকুল ইসলাম বলেছেন, দেশে-বিদেশে অনেক কথা উঠতেছে, তাহলে কিছু একটা আছে। অবশ্যই কিছু একটা আছে।

শনিবার বিকালে নীলফামারীর ডিমলায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তবে ইসি রফিকুল বলেন, নির্বাচনের পরবর্তী সময়ে অনেক প্রশ্নের উত্তর দিতে হচ্ছে। অনেক বক্তবের মুখোমুখি হতে হয়েছে।

তিনি বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর একপক্ষ বলেন সুন্দর ভোট করে দেশটাকে বাঁচিয়েছি। অপরপক্ষ বলেন খুব চমৎকার নির্বাচন করেছি আর একদল স্পষ্টভাবে বলেছেন দেশটাকে গণতন্ত্রের কবর রচনা করেছি।

ইসি রফিকুল বলেন, একটা প্রবাদ আছে যাহা কিছু রটে কিছু না কিছু বটে। কোনো প্রতিষ্ঠানের কবর রচনা করে কোনো মানুষ ভালো থাকতে পারেন না। কোনো প্রতিষ্ঠানের (ইসি) কবর রচনা যাতে না হয় সে জন্য আমি তৃণমূলে ছুটে এসেছি। কিছু একটা আছে, এই কিছু একটা থাকতে দেব না উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে। এটা হতে পারে না।

তিনি বলেন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রচারণার কারণে সব এমপি সাহেবদের এলাকাছাড়া করতেছি। কিছু একটা আছে এটা বলার সুযোগ আর দিতে চাই না।

ইসি কর্মকর্তাদের উদ্দেশে রফিকুল ইসলাম বলেন, যদি অন্যায় কিছু করতে হয়, বেআইনি কাজ করতে বাধ্য করা হয় আপনারা বিরত থাকবেন। সব দায় আমার। নির্বাচন কমিশন আপনাদের পাশে থাকবে। কোনো অন্যায় কাজে আপনারা মাথানত করবেন না।

ইসি রফিকুল আরও বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কোনো অন্যায় কাজের বিষয়ে জানলে প্রতিহত করার চেষ্টা করা হয়েছে। আপনারা অন্যায়ভাবে যাকে জনপ্রতিনিধি বানিয়ে দেবেন তারা পরবর্তীতে বড় কোনো অন্যায় কাজ করাতে আপনাদের বাধ্য করবে। যার জন্য অন্যায় করবেন তারাই ঘাড়ে ছেপে বসবে আর অন্যায় করতে বাধ্য করাবে।

ডিমলা ইসলামিয়া ডিগ্রি কলেজের হলরুমে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ৬৭৫ জন কর্মকর্তাকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।

এ সময় রংপুরের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা জিএম শাহাদাত উদ্দিন, নীলফামারীর জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন, পুলিশ সুপার আশরাফ হোসেন, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফজলুল করিম, ডিমলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুন নাহার, ওসি মফিজ উদ্দিন শেখ, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহাবুবা আক্তার বানু উপস্থিত ছিলেন। সূত্র: যুগান্তর।

মতিহার বার্তা ডট কম ০২ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *