শিরোনাম :
গোদাগাড়ীতে ১০লাখ টাকার হেরোইন-সহ ৩জন মাদক কারবারী গ্রেফতার নগরীর তালাইমারীতে গাঁজা কারকারী মল্লিক গ্রেফতার রাজশাহীতে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু রিভার সিটি নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রুয়েটকে স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রুপান্তর করতে হলে সকল ক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা জরুরী চিপস্ খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ৬ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ চেষ্টা: আসামি নাইম গ্রেফতার এইচএসসি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে আরএমপি’র নোটিশ জারি তানোরে ক্লুলেস হত্যা মামলার পলাতক আসামি ইকবাল গ্রেফতার কৃষিতে বির্পযয়ের আশঙ্কা তানোরে চোরাপথে আশা মানহীন সারে বাজার সয়লাব বাঘায় বাবুল হত্যা মামলায় চেয়ারম্যানসহ ৭ জনকে রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ সিংড়ায় ক্যান্সারে আক্রান্ত ২২ ব্যক্তির মাঝে চেক বিতরণ
রাজশাহীতে ২৭ বছর পর মামলার অবসান হলেও জমি দখল পেলেন না ভুক্তভোগী

রাজশাহীতে ২৭ বছর পর মামলার অবসান হলেও জমি দখল পেলেন না ভুক্তভোগী

রাজশাহীতে ২৭ বছর পর মামলার অবসান হলেও জমি দখল পেলেন না ভুক্তভোগী
রাজশাহীতে ২৭ বছর পর মামলার অবসান হলেও জমি দখল পেলেন না ভুক্তভোগী

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে ২৭ বছর মামলার ঘানি টেনেও দখল পেলেন না ভুক্তভোগী নুরেশা খাতুন নামের এক অসহায় বৃদ্ধা নারী।

নিজের সম্পত্তি ফিরে পেতে ১৯৯৪ সালে রাজশাহী পুঠিয়া কোর্টে দেওয়ানী মামলা করেন তিনি। স্বামীর রেখে যাওয়া সঞ্চয়কৃত ও সন্তানদের উপার্যিত টাকা মামলায় ব্যায় করে হয়েছেন নি:স্ব।

সর্বচ্চ আদালতের ডিগ্রীও নিয়ে আসেন তিনি। গত (৫ জানুয়ারি) ২০২১ অত্রদালতের অ:প্র:জারী-০৫/১১৪ মোকাদ্দমার নাজির,এ্যাডভোকেট কমিশনার মাধ্যমে পুলিশ স্কট সহায়তায় দখল প্রদানে একটি আদেশ জারি করেন সহকারী জজ পাঁপড়ি বড়ুয়া পুঠিয়া রাজশাহী। নালিশী সম্পত্তি হচ্ছে শিরোইল মৌজার হাল থানা বোয়ালিয়া, জে.এল নং-১১৩ (সাবেক) হাল-১৩৪,।

সেই আদেশের আলোকে সামনে রেখে সোমবার (১৭ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাজশাহী জেলা জজ আদালতের নেজারত বিভাগের নাজির মো. মর্সেদ আলমসহ পুলিশ স্কট নিয়ে শিরোইল কলোনী ২ নং গলির সুফিয়া বেগমের অবৈধ দখলকৃত ৮৫ শতাংশ জমি বাদিনী নুরেশা খাতুনকে বুঝিয়ে দিতে আসেন।

বাদিনী নুরেশা খাতুন নগরীর শিরোইল কলোনী এলাকার ২ নং গলির বসিন্দা। একই এলাকার বিবাদি সুফিয়া খাতুন বিগত ৩০ বছর ধরে অবৈধ পন্থায় ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে নুরেশা বেগমের ৮৫ শতাংশ জমি নিজ দখলে নিয়ে রিতিমত তিন তলা বিল্ডিং নির্মাণ করেন তিনি।

সকাল থেকে জমি মাপযোগ করে বিল্ডিং ভাঙ্গার কাজ শুরু করে শ্রমিকরা। দুপুর ৩টার দিকে পুঠিয়া জেলা জজ আদালতের মাধ্যমে দখলী পরওয়ানার কার্যক্রম স্থগিত আদেশ নিয়ে আসেন বিবাদী সুফিয়া বেগম।

পরে বিল্ডিং ভাঙ্গার কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। এঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে ১৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. তৌহিদুল হক সুমন ঘটনা স্থলে উপস্থিত হয়ে স্থগিত আদেশটি পর্যালচনা করেন এবং স্থানীয়দের সান্তনাদেন।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, সুফিয়া বেগমের নিকট নুরেশা খাতুনের বিবাদমান জমি নিয়ে এর আগেও সাবেক কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান মনির, নুরুজ্জামান টিটু ও বর্তমান কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমনের নিকট একাধিকবার বসা হলেও সুফিয়া বেগম কোনো প্রকার কর্ণপাত করেননি।

এছাড়া সমাজের কোনো ব্যক্তিবর্গদের তোয়াক্কা না করে নিজে ক্ষমতা প্রয়োগ করার চেষ্টায় লিপ্ত থাকতেন সুফিয়া। এনিয়ে দীর্ঘদিন ধরে সমাজের সাথে বিচ্ছিন্ন ছিলেন তিনি।

মতিহার বার্তা / ইএবি

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply