শিরোনাম :
গোদাগাড়ীতে ১০লাখ টাকার হেরোইন-সহ ৩জন মাদক কারবারী গ্রেফতার নগরীর তালাইমারীতে গাঁজা কারকারী মল্লিক গ্রেফতার রাজশাহীতে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু রিভার সিটি নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রুয়েটকে স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রুপান্তর করতে হলে সকল ক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা জরুরী চিপস্ খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ৬ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ চেষ্টা: আসামি নাইম গ্রেফতার এইচএসসি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে আরএমপি’র নোটিশ জারি তানোরে ক্লুলেস হত্যা মামলার পলাতক আসামি ইকবাল গ্রেফতার কৃষিতে বির্পযয়ের আশঙ্কা তানোরে চোরাপথে আশা মানহীন সারে বাজার সয়লাব বাঘায় বাবুল হত্যা মামলায় চেয়ারম্যানসহ ৭ জনকে রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ সিংড়ায় ক্যান্সারে আক্রান্ত ২২ ব্যক্তির মাঝে চেক বিতরণ
রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা পেলেন ৫ গুনীজন

রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা পেলেন ৫ গুনীজন

রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা পেলেন ৫ গুনীজন
রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা পেলেন ৫ গুনীজন

এসএম বিশাল: রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমি থেকে ৫ গুনীজনকে সম্মাননা-২০২১ প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১ মার্চ) বিকেলে শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে এই সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। ৫ ক্যাটাগরিতে ৫ গুনীজনকে সম্মাননা হিসেবে ১০ হাজার করে টাকা, উত্তরীয়, মেডেল ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।

সম্মাননাপ্রাপ্ত গুনীজনেরা হলেন: দ্বিজেন্দ্রনার্থ ব্যানার্জী (নাট্যকলা), জয়দীপ ভাদুড়ী (আবৃত্তি), রাজশাহী থিয়েটার (সাংস্কৃতিক সংগঠন), আব্দুর রশিদ (সঙ্গীত), যতন কুমার পাল (যন্ত্রশিল্প-তবলা)

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার জিএসএম জাফরুল্লাহ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী জেলা প্রশাসন আব্দুল জলিল। এছাড়া বিশিষ্ট নাট্যজন মলয় কুমার ভৌমিক, রাজশাহী জেলা কালচারাল অফিসার আসাদুজ্জামান সরকার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিভাগীয় কমিশনার জি এস এম জাফরুল্লাহ বলেন, প্রতি বছরের ন্যায় এবারো ৫ গুনীজনকে রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা প্রদান করা হলো। গুনীজনদের সম্মাননা প্রদান করতে পেরে আমরা গর্বিত। সম্মাননা মানুষকে ভালো কাজে উৎসাহিত করে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শাহীন আকতার রেনী বলেন, শিল্পকলা একাডেমিতেই সংস্কৃতির চর্চা হয়। অনেক গুনীজন তৈরি হয় এখান থেকে। পূর্বে এভাবে গুনীজন সংবর্ধনা দেওয়া হতো না। বর্তমানে জনবান্ধব, শিশু ও নারীবান্ধব মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গুনীজনদের সংবর্ধনা প্রদানের ব্যবস্থা করেছেন। সকল ক্ষেত্রের মানুষকে নিজ নিজ ক্ষেত্রে সম্মাননা, স্বীকৃতি প্রদান করা হচ্ছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ছেন তাঁরই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মতিহার বার্তা / ইএবি

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply