শিরোনাম :
গোদাগাড়ীতে ১০লাখ টাকার হেরোইন-সহ ৩জন মাদক কারবারী গ্রেফতার নগরীর তালাইমারীতে গাঁজা কারকারী মল্লিক গ্রেফতার রাজশাহীতে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু রিভার সিটি নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রুয়েটকে স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রুপান্তর করতে হলে সকল ক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা জরুরী চিপস্ খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ৬ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ চেষ্টা: আসামি নাইম গ্রেফতার এইচএসসি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে আরএমপি’র নোটিশ জারি তানোরে ক্লুলেস হত্যা মামলার পলাতক আসামি ইকবাল গ্রেফতার কৃষিতে বির্পযয়ের আশঙ্কা তানোরে চোরাপথে আশা মানহীন সারে বাজার সয়লাব বাঘায় বাবুল হত্যা মামলায় চেয়ারম্যানসহ ৭ জনকে রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ সিংড়ায় ক্যান্সারে আক্রান্ত ২২ ব্যক্তির মাঝে চেক বিতরণ
পাবনার ওসিকে এক টাকা জরিমানা

পাবনার ওসিকে এক টাকা জরিমানা

পাবনার ওসিকে এক টাকা জরিমানা
পাবনার ওসিকে এক টাকা জরিমানা

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনার আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রওশন আলীকে এক টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জিয়াউর রহমান।

মঙ্গলবার (৮ মার্চ) দুপুরে রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনাল থেকে এ দন্ড দেন বিচারক।

রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) ইসমত আরা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, রওশন আলী আগে পাবনা জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) কর্মরত ছিলেন। ২০১৮ সালে ৬ আগস্ট নিরাপদ সড়ক চাই-এর আন্দোলন নিয়ে ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এক যুবককে আটক করে তখন তিনি একটি মামলা করেন। মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য আদালত তদন্ত কর্মকর্তাসহ অন্য সাক্ষীদের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। ইনফরমেন্ট সাক্ষী হিসেবে রওশন আলীকে সাক্ষ্য দেওয়ার জন্য পর পর ছয়বার সমন পাঠানো হয়। কিন্তু তিনি আদালতে আসেননি। পরে আদালত স্বপ্রণোদিত হয়ে রওশন আলীর মোবাইলের হোয়াটসঅ্যাপে আদালতের সমনের ছবি পাঠান। এতেও কোনো উত্তর না দিয়ে তিনি সাক্ষ্য দেওয়া থেকে বিরত থাকেন। ফলে মামলার স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হয়। তাই কেন তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর একটি নোটিশ পাঠান আদালত।

তিনি আরো বলেন, গত ২৬ জানুয়ারি এ নোটিশ পাঠানোর পর মামলার নির্ধারিত দিনে মঙ্গলবার হাজির হয়ে ক্ষমা প্রার্থনা করেন ওসি। তবে আদালত ওসিকে এক টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে কারাদণ্ডের আদেশ দেন।

এদিকে আদালত সূত্রে জানা গেছে, অন্য আরেকটি মামলার ক্ষেত্রেও আদালতের সমন অবজ্ঞা করেছিলেন ওসি রওশন। পরে লিখিতভাবে আদালতের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা চাইলে আদালত তাঁকে ক্ষমা করেন। আজ মঙ্গলবারও আদালতে হাজির হয়ে ওসি ক্ষমা প্রার্থনা করেছিলেন। তবে আদালত মনে করেছেন ওসির কোনো অনুশোচনা নেই। তাই এক টাকা অর্থদণ্ড করা হয়।

পিপি ইসমত আরা জানান, আদালতের আদেশের পর ওসি রওশন আলী তাঁর কাছে জরিমানার এক টাকা পরিশোধ করেছেন। এরপর তিনি রাষ্ট্রীয় কোষাগারে টাকাটি জমা দিয়েছেন।

মতিহার বার্তা / ইএবি

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply