শিরোনাম :
গোদাগাড়ীতে ১০লাখ টাকার হেরোইন-সহ ৩জন মাদক কারবারী গ্রেফতার নগরীর তালাইমারীতে গাঁজা কারকারী মল্লিক গ্রেফতার রাজশাহীতে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু রিভার সিটি নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রুয়েটকে স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রুপান্তর করতে হলে সকল ক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা জরুরী চিপস্ খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ৬ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ চেষ্টা: আসামি নাইম গ্রেফতার এইচএসসি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে আরএমপি’র নোটিশ জারি তানোরে ক্লুলেস হত্যা মামলার পলাতক আসামি ইকবাল গ্রেফতার কৃষিতে বির্পযয়ের আশঙ্কা তানোরে চোরাপথে আশা মানহীন সারে বাজার সয়লাব বাঘায় বাবুল হত্যা মামলায় চেয়ারম্যানসহ ৭ জনকে রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ সিংড়ায় ক্যান্সারে আক্রান্ত ২২ ব্যক্তির মাঝে চেক বিতরণ
পাকিস্তান সীমান্ত চিনা বাহিনী মোতায়েন, উদ্বেগ ভারতের

পাকিস্তান সীমান্ত চিনা বাহিনী মোতায়েন, উদ্বেগ ভারতের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের উদ্বেগ বাড়াল চিন। সেনাবাহিনীর একটি ফোর্সকে পাকিস্তানে মতায়েন করল বেজিং।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে চিনের একটি সেনাদল মোতায়েন করা হয়েছে। মূলত ভারত-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডর বা সিপিইসি’র নিরাপত্তার লক্ষ্যে এই বাহিনীকে পাক-ভারত আন্তর্জাতিক সীমান্ত থেকে মাত্র ৯০ কিলোমিটার দূরে মোতায়েন করা হয়েছে।

যা যথেষ্ট চিন্তার কারণ ভারতের কাছে। যদিও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বিএসএফ তাদের সীমান্তের নিকটবর্তী এলাকায় চিনা সেনাদের গতিবিধি লক্ষ্য করছে এবং নজর রাখছে বলে জানা গিয়েছে। এদিকে, এর আগে, তিন হাজার কিলোমিটার করিডরের নিরাপত্তায় পাকিস্তান ১৭ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে।

ভারতের প্রাক্তন এক সেনা কর্মকর্তা অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল হারশা কাকার রাশিয়ান একটি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, চিনের সেনাদল মোতায়েন ভারতের জন্য যথেষ্ট চিন্তার। প্রয়োজনে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত কোনও সেনা অভিযান চালাতে গেলে চিনের এই বাহিনী বাধা হয়ে দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি।

অবশ্য, এই বাহিনী মোতায়েনের মধ্যে দিয়ে বেজিং-ইসলামাবাদ সম্পর্ক আরও ঘনিষ্ঠ হওয়ার আভাসই পাওয়া যাচ্ছে বলেও স্বীকার করেন। পাশাপাশি এই বাহিনী মোতায়েন প্রসঙ্গে পাকিস্তানের কঠোর সমালোচনা করে তিনি দাবি করেন, তার ভাষায়, সুস্থ মাথার কোনও দেশ এই ধরণের মোতায়েনের অনুমতি কখনই দেবে না। কীভাবে পাকিস্তান তা মেনে নিল তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, সিপিইসি’র আওতাধীন কোটি কোটি ডলারের প্রকল্পগুলির কাজ চলছে এখন পাকিস্তানে। প্রাথমিক ভাবে এই সমস্ত প্রকল্প খাতে ৪৬ বিলিয়ন ডলার ব্যয় হবে বলে উল্লেখ করা হলেও বর্তমানে এই ব্যয়ের হিসাব ৬২ বিলিয়ন ডলারও অতিক্রম করেছে। আর সেই নিরাপত্তার কারণেই পাকিস্তানের মাটিতে বিপুল পরিমাণ সেনাবাহিনী মোতায়েনে অনুমতি দিয়েছে ইমরান খান সরকার।

মতিহার বার্তা ডট কম ১৬ এপ্রিল ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply