শিরোনাম :
সাধারণ মানুষ সমাবেশ প্রত্যাখান করেছে, রাসিক মেয়র লিটন রাজশাহী নগরীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির গণসমাবেশ শুরু কাজ হল না বিষেও! আসামির মৃত্যু নিশ্চিত করতে ভয়ঙ্কর পন্থা নিলেন জেল কর্তৃপক্ষ সঙ্গ পেতে মহিলাকে নিয়ে কলকাতার হোটেলে, প্রতিশ্রুতি মতো টাকা না দেওয়ায় ধৃত ৩ বাংলাদেশি প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে এখন লজ্জায় মুখ দেখাতে পারছেন না স্পেনের কোচ, কেন? বদলের ব্রাজিলে নজিরের মুখে দাঁড়িয়ে আলভেস, পেলেকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নামছে সেলেকাওরা বিশ্বকাপে নেমারের খেলার সম্ভাবনা নিয়ে এ বার মুখ খুললেন তাঁর বাবা রাজশাহীতে আনোয়ার হোসেন উজ্জলের নেতৃত্বে হাজার হাজার মানুষের মিছিল অনুষ্ঠিত শীত উপেক্ষা করে খোলা মাঠে রাত কাটালো বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে পথে পথে বাধা
দেশে যে কোনও মুহূর্তে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করতে পারেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট

দেশে যে কোনও মুহূর্তে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করতে পারেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আমেরিকাতে ক্রমশ শাট ডাউন চলছে। দেওয়াল তোলার জন্যে একদিকে যখন অর্থ বরাদ্দ নিয়ে নাছোড়বান্দা মার্কিন প্রেসিডেন্ট অন্যদিকে নিজেদের অবস্থান থেকে একচুলো নড়তে নারাজ মার্কিন কংগ্রেসও। এই ইস্যুতে কার্যত ক্রমশ অচলবস্থা বাড়ছে আমেরিকায়। তবে ডেমোক্র্যাটরা যদি বিল পাশ করতে না দেন তাহলে জরুরি অবস্থা জারি করে মেক্সিকো সীমান্তে দেওয়াল তোলার জন্যে ডলারের জোগাড় করা হবে। এমনটাই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোলান্ড ট্রাম্প।

সম্প্রতি টেক্সাসে সীমান্ত পরিদর্শনে যান মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সেখানেই দেশে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করার হুঁশিয়ারি দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ট্রাম্পের হুমকির পরও অবশ্য নিজেদের অবস্থানে অনড় ডেমোক্র্যাটরা। পরিস্থিতি তৈরি হলে জাতীয় জরুরি অবস্থার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার পাল্টা হুমকি দিয়েছেন তাঁরা। যা কানে এসেছে মার্কিন প্রেসিডেন্টেরও।

সাংবাদিকদের তিনি জানিয়েছেন, ‘আমি যে কোনও কিছুর জন্য তৈরি রয়েছি। আইনজীবীরা জানিয়েছেন এই মামলায় আমার জয়ের সম্ভাবনা ১০০ শতাংশ।’ ডেমোক্র্যাটদের সঙ্গে আরও কোনও বৈঠকও করতে চান না তিনি।

ডেমোক্র্যাটদের সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিবাদের জেরে আজ সোমবার ২৪ দিনে পড়ল মার্কিন সরকারের একাংশে চলা অচলাবস্থা বা ‘শাটডাউন’।

উল্লেখ্য, সীমান্ত প্রাচীর নিয়ে প্রস্তাবিত ৫৭০ কোটি ডলার বরাদ্দ দিতে না চাওয়ায় ডেমোক্র্যাটদের সঙ্গে বৈঠকের মাঝপথেই বেরিয়ে যান ট্রাম্প। মধ্যবর্তী নির্বাচনের পর মার্কিন কংগ্রেসে ডেমোক্র্যাটরা সংখ্যাগরিষ্ঠ। তাই তাদের বাধা এড়াতে গেলে এখন একমাত্র জরুরি অবস্থার রাস্তাই খোলা রয়েছে ট্রাম্পের সামনে।

মতিহার বার্তা ডট কম  – ১৪ জানুয়ারি, ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *