শিরোনাম :
গোদাগাড়ীতে ১০লাখ টাকার হেরোইন-সহ ৩জন মাদক কারবারী গ্রেফতার নগরীর তালাইমারীতে গাঁজা কারকারী মল্লিক গ্রেফতার রাজশাহীতে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু রিভার সিটি নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রুয়েটকে স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রুপান্তর করতে হলে সকল ক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা জরুরী চিপস্ খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ৬ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ চেষ্টা: আসামি নাইম গ্রেফতার এইচএসসি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে আরএমপি’র নোটিশ জারি তানোরে ক্লুলেস হত্যা মামলার পলাতক আসামি ইকবাল গ্রেফতার কৃষিতে বির্পযয়ের আশঙ্কা তানোরে চোরাপথে আশা মানহীন সারে বাজার সয়লাব বাঘায় বাবুল হত্যা মামলায় চেয়ারম্যানসহ ৭ জনকে রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ সিংড়ায় ক্যান্সারে আক্রান্ত ২২ ব্যক্তির মাঝে চেক বিতরণ
মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন সুষ্ঠ ও সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে: নির্বাচন কমিশনার

মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন সুষ্ঠ ও সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে: নির্বাচন কমিশনার

মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন সুষ্ঠ ও সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে: নির্বাচন কমিশনার
কেন্দ্র নাইস সিটি কনভেনশন সেন্টার

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। এতে সভাপতি পদে বিজয়ী হয়েছেন জাহাঙ্গীর আলম। আর সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন মাহাতাব হোসেন চৌধুরী।

গতকাল শনিবার সকাল ১০টায় নির্বাচনের এই ফল ঘোষণা করা হয়। নির্বাচনের ১১টি পদের মধ্যে ৮টির ফলাফল ঘোষণা করা হয়। বাকি তিন পদের ভোট গণনা শেষ হয়নি বলে ফলও ঘোষণা হয়নি। ৮টি পদের ফল ঘোষণা করেন নির্বাচনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার অ্যাডভোকেট রবিউল হক কাকর।

ঘোষিত ফল অনুযায়ী, সভাপতি পদে জাহাঙ্গীর আলম দোয়াত কলম প্রতীকে এক হাজার ৯৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। আর সাধারণ সম্পাদক পদে মাহাতাব হোসেন চৌধুরী স্টিমার প্রতীকে এক হাজার ৬০৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া ঘোষিত অন্য ছয় পদের মধ্যে সহসাধারণ সম্পাদক পদে মো. গাজি, কোষাধ্যক্ষ পদে জহুরুল ইসলাম জনি, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মো. ফেরদৌস, দপ্তর সম্পাদক পদে পরিমল দাস, সহদপ্তর সম্পাদক পদে শংকর কুমার তালুকদার, সাংষ্কৃতিক, ক্রীড়া ও প্রচার সম্পাদক পদে গোলাম আজম জুলমত নির্বাচিত হয়েছেন।

এর আগে শুক্রবার রাজশাহীর মাদ্রাসা মাঠ সংলগ্ন নাইস কমিউনিটি সেন্টারে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হয়। নির্বাচনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ মোট ২১টি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ১১১ জন। নির্বাচনের মোট ভোটার ছিলেন তিন হাজার ৪২০ জন।

এই নির্বাচনের ভোটগ্রহণকালেও দুই সাধারণ সম্পাদক প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে এক প্রার্থীসহ অন্তত সাতজন আহত হন। পরে তাদের রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার অ্যাডভোকেট রবিউল হক কাকর বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। একটু মারামারির ঘটনা ঘটলেও সেটা কেন্দ্রের বাইরে। কেন্দ্রের ভেতরে কোনো বিশৃঙ্খলা ঘটেনি। ভোট গণনা শেষ হওয়া মাত্রই বাকি তিন পদের ফলাফল ঘোষণা করা হবে। 

মতিহার বার্তা ডট কম  ০৬ অক্টোবর  ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply