শিরোনাম :
চিরবিদায় নিলেন গজ়ল শিল্পী পঙ্কজ উধাস বাঘায় ফেনসিডিল-সহ গ্রেফতার- ৩ রাজশাহী এডিটরস ফোরামের সভাপতি লিয়াকত সম্পাদক অপু সিঙ্গাপুরের স্কুল থেকে পড়াশোনা শেষ হওয়ার আগেই তাড়িয়ে দেওয়া হয় কাজল-কন্যা নিসাকে! বচ্চনদের সঙ্গে বনিবনা হচ্ছে না ঐশ্বর্যার, এ বার আরাধ্যাকে নিয়ে মুখ খুললেন নব্যা ইউক্রেন যুদ্ধের দ্বিতীয় বর্ষপূর্তিতে হামলার তীব্রতা বাড়াল রাশিয়া, নিশানায় ওডেসা-সহ বিভিন্ন শহর ইজ়রায়েলের আচরণে ক্ষুব্ধ আমেরিকা গাজ়ায় যুদ্ধের প্রতিবাদ, ওয়াশিংটনের ই‌জ়রায়েলি দূতাবাসের সামনে গায়ে আগুন, আমেরিকার সেনার ‘ভারতীয় সেনাদের নিয়ে মিথ্যা বলছেন মুইজ্জু’! এ বার প্রাক্তন মন্ত্রীর তোপের মুখে মলদ্বীপের প্রেসিডেন্ট মাদক ব্যবসা : দেনাদারের বাসায় পাওনাদারের লাশ
প্রেমে সাড়া না দেওয়ায় স্কুলছাত্রীকে কুপিয়ে জখম

প্রেমে সাড়া না দেওয়ায় স্কুলছাত্রীকে কুপিয়ে জখম

প্রেমে সাড়া না দেওয়ায় স্কুলছাত্রীকে কুপিয়ে জখম
ছবি সংগ্রহীত

মতিহার বার্তা ডেস্ক : শরীয়তপুরে প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় পালং উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে। এলাকার বখাটে রিফাত ও তার বন্ধুরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।

সোমবার (১৪ অক্টোবর) আড়াইটার দিকে পরীক্ষা শেষে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটায় ওই বখাটে। এ ঘটনায় পালং স্কুল কর্তৃপক্ষ জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।

ভিকটিমের পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন যাবত বিলাশখান গ্রামের মৃত কবির শিকদারের ছেলে বখাটে রিফাত ওই ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এতে সে রাজি না হওয়ায় সোমবার আড়াইটার দিকে পরীক্ষা শেষে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে বখাটে রিফাত তার ৪ থেকে ৫ জন বন্ধুকে নিয়ে মেয়েটির পথরোধ করে।

এ সময় রিফাত ছুরি দিয়ে মেয়েটিকে আঘাত করে পালিয়ে যায়। ছাত্রীটি তখন রাস্তায় পড়ে গেলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

স্কুলছাত্রীর বড় বোন জানান, দীর্ঘদিন যাবত বখাটে রিফাত তার বোনকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে রিফাত তার বন্ধুদের নিয়ে বিরক্ত করত। প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বোনকে প্রায়ই খুন করার হুমকি দিত রিফাত।

ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর মা বলেন, আমি মেয়েকে পড়তে পাঠিয়েছিলাম। কিন্তু এ কী হলো। আমি এর দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।

পালং উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল হালিম বলেন, স্কুলছাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে না পারলে নারী শিক্ষা বাধাগ্রস্ত হবে। মেয়েটি স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে যারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের কঠোর শাস্তি দাবি করছি। তাদের শাস্তি নিশ্চিত করতে আমাদের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

পালং মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসলাম উদ্দিন বলেন, সংবাদ পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। জড়িতদের গ্রেফতার করতে অভিযান শুরু হয়েছে। সুত্র: দৈনিক অধিকার

মতিহার বার্তা ডট কম: ১৪ -অক্টোবর ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply