শিরোনাম :
রাজশাহী মহানগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার – ১৮ মোহনপুরে বিপুল পরিমান গাঁজা-সহ গ্রেফতার মাদক কারবারী রানবীর জাহান রাজশাহী জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা সদস্যদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতারণ সিরাজগঞ্জে ছিনতাই চক্রের সক্রিয় ৫জন সদস্য গ্রেফতার চকলেটের প্রলোভনে সাত বছরের শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা রুয়েট কেন্দ্রে ১ম বর্ষ সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন মেস মালিকদের কাছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন অসহায় রাজশাহীতে মাদক কারবারী, মাদকসেবী, ও ২জন পলাতক আসামী-সহ গ্রেফতার- ৮ বেলপুকুর থানার অভিযানে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্তসহ ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি গ্রেপ্তার শাহমখদুম থানার অভিযানে কিশোর গ্যাংয়ের ৫ সদস্য গ্রেপ্তার
রাজশাহীর সাবেক এমপি’র এপিএস ও তার স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত

রাজশাহীর সাবেক এমপি’র এপিএস ও তার স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত

রাজশাহীর সাবেক এমপি’র এপিএস ও তার স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত
রাজশাহীর সাবেক এমপি’র এপিএস ও তার স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত

পুঠিয়া প্রতিনিধি : রাজশাহী-৫ (দূর্গাপুর-পুঠিয়া) আসনের সাবেক এমপি আব্দুল ওয়াদুদ দারার এপিএস বদিউজ্জামান ও তার স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত করেছে যুবলীগের নেতাকর্মীরা বলে অভিযোগ উঠেছে।

আজ রোববার সকালে উপজেলার বানেশ্বর বাজার এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে বলে নিশ্চিত করেছে স্থানীয়রা।

এই ঘটনায় এপিএস বদিউজ্জামান বদি (৩৮) ও তার স্ত্রী সেলিনা খাতুন শ্যামলী (৩২) আহত হয়েছেন। পরে গুরুতর আহত বদিউজ্জামানকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ৫ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। আহত বদিউজ্জামান বদি দূর্গাপুর উপজেলার ঝালুকা ইউনিয়নের ভাংগির পাড়া গ্রামের আকবর আলীর ছেলে।

তিনি গত ১০ বছর রাজষাহী-৫ (দূর্গাপুর-পুঠিয়া) আসনের সাবেক এমপি দারা’র একান্ত ব্যক্তিগত সহকারী হিসেবে কাজ করেছেন। এছাড়াও তিনি বানেশ্বর সরকারী কলেজে শিক্ষকতা করেন। তার বাবা আকবর আলীও দূর্গাপুর উপজেলার ঝালুকা ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি পদে রয়েছেন। এছাড়াও তার স্ত্রী শ্যামলী খাতুনও দূর্গাপুর উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ের বিউটিশিয়ান ট্রেনার হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বদিউজ্জামাল তার স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুড়বাড়ি তাতালপুর থেকে বানেশ্বর সরকারি কলেজে আসছেন। এসময় বানেশ্বর বাজারে পৌছালে ধানহাটা নামক এলাকায় স্থানীয় যুবলীগের সুমন, রিয়াজুল. শরিফ, সাইফুল ও উজ্জলসহ ৫/৭ জন নেতাকর্মীরা তার মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে। সেই সাথে তার কাছে সাড়ে ৩ লাখ টাকা দাবী করেন তারা।

এসময় তাদের টাকা দিতে অশিকার করলে মোটরসাইকেলের চাবী ছিনিয়ে নেয় তারা। পরে বদিউজ্জামাল এর প্রতিবাদ করলে উপস্থিত ওইসকল যুবলীগে নেতাকর্মী তাকে মারধর শুরু করে। এসময় তার স্ত্রী উদ্ধারে এগিয়ে গেলে তাকেও মারধর করেন। আহত বদিউজ্জামান জানান, যুবলীগের কিছু নেতাকর্মীরা আমার কাছে চাঁদা দাবি করে আসছিলো। চাঁদা দিতে না চাইলে পথে এই হামলার শিকার হন তিনিসহ তার স্ত্রী । এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বর্তমান এমপি মনসুর রহমানের অনুসারী ও সাবেক এমপি দারা’র অনুসারীদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এবিষয়ে পুঠিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম বলেন, বানেশ্বর এলাকায় কিছু ছেলে বদিউজ্জামানকে মারধর করেছে। ঘটনস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এই ঘটনায় থানায় অভিযোগ হয়েছে। তদন্তপুর্বক আইনগত ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।

মতিহার বার্তা ডট কম – ২০ অক্টোবর ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply