শিরোনাম :
গোদাগাড়ীতে জমি সংক্লান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ২ রাজশাহী মহানগরীতে ডাকাত দলনেতা গ্রেফতার রাজশাহী মহানগরীর ফ্লাইওভার নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করলেন রাসিক মেয়র গোদাগাড়ীতে নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা দিলেন জেলা প্রশাসক রাজশাহীতে নাশকতার মামলায় বিএনপির চার নেতা গ্রেপ্তার, আহত ১ মেসিরা হারুন বা জিতুন, ব্রাজিল বিশ্বকাপ জিতলে বেশি খুশি হবেন আর্জেন্টিনার কোচ! রান্না করা খাবার গরম করে খান? কোন খাবারগুলি দু’বার গরম করলে মারাত্মক বিপদ হতে পারে? কিশোরীর পাকস্থলীতে ৩ কেজি চুল! বৃদ্ধের পেট থেকে পাওয়া গেল ১৮৭ টি কয়েন! লাগবে না টাকা, লাগবে না কার্ড, নেই চুরির ভয়, কেনাকাটা জন্য অভিনব উপায় বেছে নিলেন যুবক
চাকরি দেয়ার নামে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে নগর তথ্য-প্রযুক্তি লীগ সভাপতি জেল হাজতে

চাকরি দেয়ার নামে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে নগর তথ্য-প্রযুক্তি লীগ সভাপতি জেল হাজতে

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীতে চাকরি দেয়ার নাম করে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে ‘ন্যাচারাল হেল্থ কেয়ার বাংলাদেশ লিঃ’ নামে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের এক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে।

তবে ওই কর্মকর্তাই শুধু নন, এর সাথে আরো একাধিক রাঘব বোয়াল জড়িত বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

এরই মধ্যে প্রতিষ্ঠানটির বিভাগীয় প্রধান ও বাংলাদেশ আওয়ামী তথ্য-প্রযুক্তি লীগ রাজশাহী মহানগরের সভাপতি মোঃ মাসুদ রানা নামের এক কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

তবে এর মূল হোতা এখনো গ্রেফতার হয়নি।

চাকরি দেয়ার নাম করে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে রাজশাহী নগরীর মতিহার থানার কাজলা এলাকার নজরুল ইসলাম ওরফে দিনার নামের এক ব্যক্তি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ ও থানায় দায়ের করা অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ন্যাচারাল হেলথ কেয়ার বাংলাদেশ লিমিটেডের রাজশাহী শাখায় পিয়ন পদে চাকরি করেন নজরুল ইসলাম ওরফে দিনার।

এই প্রতিষ্ঠানের বিভাগীয় প্রধান মাসুদ রানার সাথে পরিচয় হয় দিনারের ছোট বোনের স্বামী ব্রাহ্মনবাড়ীয়ার কসবা থানার খাদলা এলাকার জাহিদ হাসানের। আর মাসুদ রানার বাড়ি নগরীর তেরখাদিয়া উত্তরপাড়া ডাবতলা এলাকায়।

পরিচয়ের সূত্র ধরে জাহিদ ন্যাচারাল হেলথ কেয়ার বাংলাদেশ লিমিটেডের কর্মকর্তা মাসুদ রানার কাছে জানতে চান তার জন্য চাকরির ব্যবস্থা করা যায় কিনা।

মাসুদ রানা তখন জাহিদকে জানান, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় গাজীপুরে ল্যাব এটেনডেন্ট পদে চাকরি দেওয়া যাবে। চাকরির শর্ত হিসেবে মাসুদ রানা ৬ লাখ টাকা দাবি করেন জাহিদের কাছে। সে অনুযায়ী কয়েক দফায় ৬ লাখ টাকা বুঝে নেন মাসুদ রানা। কিন্তু দাবিকৃত টাকা বুঝে পেলেও মাসুদ রানা ও তার উর্ধ্বতন বস জাকির হোসেন চাকরি দিতে পারেননি।

চাকরি দেওয়া হবে বলে বিভিন্ন সময়ে প্রতিশ্রুতি দিয়ে হয়রানি ও সময়ক্ষেপন করতে থাকেন তারা। পরে বাধ্য হয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন নজরুল ইসলাম ওরফে দিনার।

অভিযোগ পেয়েই মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ও থানা পুলিশ যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে গত ১১ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় চন্দ্রিমা থানাধীন পদ্মা আবাসিক, রোড নং- ৭, বাড়ী নং-৩৫১ (নুহাশ-নাব্য) নামক বিল্ডিংয়ের সামনের রাস্তা থেকে ন্যাচারাল হেলথ কেয়ার বাংলাদেশ লিমিটেডের বিভাগীয় প্রধান মাসুদ রানাকে গ্রেফতার করে।

এতে নেতৃত্ব দেন মহানগর গোয়েন্দা শাখার সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) মোঃ ফজলুল করিম। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়। তবে এ ঘটনার মূল হোতা জাকির হোসেন এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়েছেন। পুলিশ এখনো তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এমনকি জাকিরের পূর্নাঙ্গ পরিচয়ও এখন পর্যন্ত জানতে পারেনি পুলিশ।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে গতকাল রবিবার চন্দ্রিমা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ হুমায়ুন কবির জানান, ন্যাচারাল হেলথ কেয়ার বাংলাদেশ লিমিটেড নামের ভূয়া প্রতিষ্ঠানটির বিভাগীয় প্রধান মোঃ মাসুদ রানাকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

তবে এ ঘটনার মূল হোতা জাকির হোসেন এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়েছেন। তাকে ধরতে পুলিশ মাঠে তৎপর রয়েছে।

মতিহার বার্তা ডট কম – ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *