শিরোনাম :
রাজশাহীতে গণসমাবেশ সফল করার লক্ষ্যে উপজেলার হাট বাজারে লিফলেট বিতরণ করলেন বিএনপি নেতা উজ্জল কমলগঞ্জে বিদেশি মদসহ আটক ১ ছাত্রীদের শ্লীলতাহানির অভিযোগে এক শিক্ষক আটক বাজারে এল ‘বিশ্বের সবচেয়ে দামি ওষুধ’, এক ডোজের দাম ২৮ কোটি টাকা! সারা দিনে দু’লিটার জল খাওয়ার কি সত্যিই কোনও প্রয়োজন রয়েছে? কী বলছে গবেষণা? শীতের সন্ধ্যায় বন্ধুরা আড্ডা দিতে আসবেন? অল্প খরচে বাড়ি সাজাবেন কী ভাবে? শীত আসতেই পা ফাটতে শুরু করেছে বয়স ১২৬! কী খান, কী পান করেন, ‘রহস্য’ জানতে ভিড় উপচে পড়ল কলকাতার হাসপাতালে যুদ্ধের নয়া অস্ত্র মিলিব্লগার! ‘ভদকা খেয়ে মরলে কেউ খোঁজ রাখে? ছেলে তো দেশের জন্য শহিদ হয়েছে’! রুশ সেনার মাকে পুতিন
উন্নত হোটেল ছেড়ে ৫০০ টাকার গেস্ট হাউজে থাকছেন আইজিপি

উন্নত হোটেল ছেড়ে ৫০০ টাকার গেস্ট হাউজে থাকছেন আইজিপি

নিজস্ব প্রতিবেদক :  টেকনাফ সীমান্তের ইয়াবা কারবারিদের আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠান তদারকি করতে গত বৃহস্পতিবার কক্সবাজার গিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মো. জাবেদ পাটোয়ারি। সেখানে তার জন্য উন্নত মানের হোটেলে থাকার ব্যবস্থা থাকলেও তিনি থাকছেন একেবারেই সাধারণ একটি গেস্ট হাউজে। খাচ্ছেন স্থানীয় সাধারণ খাবারই। পুলিশ বাহিনী প্রধানের এমন কর্মকাণ্ড নিয়ে আলোচনা হচ্ছে সর্বত্র। একে অনুকরণীয় বলছেনই অনেকেই।

জানা গেছে, শনিবার টেকনাফ সীমান্তের ইয়াবা কারবারিদের আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানের তদারকি করতেই পুলিশের আইজিপি বৃহস্পতিবার কক্সবাজার এসে পৌঁছান। কক্সবাজার সাগর পাড়ে রয়েছে কমপক্ষে আধা ডজন তারকা মানের হোটেল। রয়েছে অনেক উন্নত মানের সরকারি-বেসরকারি সার্কিট হাউজ থেকে শুরু করে গেস্ট হাউজও। আইজিপি’র জন্য তারকা মানের হোটেলে অবস্থানের ব্যবস্থা থাকলেও তিনি এসব সুযোগ-সুবিধা না নিয়ে সাধারণ মানের গেস্ট হাউজে অবস্থান করছেন।

কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক কামরুল আজম বলেন, আমি পুলিশের একজন ছোট কর্মকর্তা হিসেবে অবাক হচ্ছি পুলিশ বাহিনীর একজন প্রধান হয়েও আইজিপি স্যার সাগর পাড়ের আধুনিক সুযোগ সুবিধার হোটেলে থাকছেন না। তিনি থাকছেন পুলিশ ম্যাচের একটি অতি সাধারণ মানের কক্ষে।

পরিদর্শক কামরুল আজম আইজিপি’র অবস্থানের জন্য পুলিশ ম্যাচটির দেখভাল করার দায়িত্ব পালন করছিলেন।

তিনি বলেন, কক্সবাজার দেশের প্রধান পর্যটন কেন্দ্র হবার সুবাধে এখানে সরকারি-বেসরকারি লোকজন আসেন প্রতিনিয়ত। অনেকেরই থাকে বিলাসী চাহিদা। কিন্তু এক্ষেত্রে পুলিশের মহাপরিদর্শকের সাধারণ্যে অবস্থান যেন অন্যরকমের।

কক্সবাজার জেলা পুলিশের পরিদর্শক মানস বড়ুয়া এ বিষয়ে বলেন, আমাদের দেশে পুলিশই যেহেতু নানা কাজে জড়িত থাকে সেহেতু পুলিশ নিয়েই সবচেয়ে বেশী আলোচনা-সমালোচনা হয়ে থাকে। আর এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ বাহিনীর প্রধান হিসাবে আইজিপি মহোদয়ের এরকম সাধারণ মানের জীবন-যাপন দেশব্যাপী নিশ্চয়ই গোটা পুলিশ বাহিনীরই ভাবমূর্তি উজ্জল করবে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, পুলিশ ম্যাচের যে কক্ষে আইজিপি অবস্থান করছেন সেটির ভাড়া মাত্র ৫০০ টাকা। অথচ সাগর পাড়ের একটি তারকামানের হোটেলের প্রতিটি কক্ষের ভাড়া ক্ষেত্র বিশেষে ১০/১৫ হাজার টাকা।

মতিহার বার্তা ডট কম – ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *