শিরোনাম :
সাধারণ মানুষ সমাবেশ প্রত্যাখান করেছে, রাসিক মেয়র লিটন রাজশাহী নগরীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির গণসমাবেশ শুরু কাজ হল না বিষেও! আসামির মৃত্যু নিশ্চিত করতে ভয়ঙ্কর পন্থা নিলেন জেল কর্তৃপক্ষ সঙ্গ পেতে মহিলাকে নিয়ে কলকাতার হোটেলে, প্রতিশ্রুতি মতো টাকা না দেওয়ায় ধৃত ৩ বাংলাদেশি প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে এখন লজ্জায় মুখ দেখাতে পারছেন না স্পেনের কোচ, কেন? বদলের ব্রাজিলে নজিরের মুখে দাঁড়িয়ে আলভেস, পেলেকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নামছে সেলেকাওরা বিশ্বকাপে নেমারের খেলার সম্ভাবনা নিয়ে এ বার মুখ খুললেন তাঁর বাবা রাজশাহীতে আনোয়ার হোসেন উজ্জলের নেতৃত্বে হাজার হাজার মানুষের মিছিল অনুষ্ঠিত শীত উপেক্ষা করে খোলা মাঠে রাত কাটালো বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে পথে পথে বাধা
মহিলারাই বেশি উপভোগ করেন পরকীয়া সম্পর্ক , দাবি সমীক্ষায় !

মহিলারাই বেশি উপভোগ করেন পরকীয়া সম্পর্ক , দাবি সমীক্ষায় !

বিনোদন ডেস্ক : পরকীয়া শুনলেই অনেকেরই বুকের ভিতর দুরু দুরু শুরু হয়ে যায়। কেউ আবার নাক শিঁটকোন। তবে এ কথা মোটামুটি সকলেই মানবেন যে, সাধারণ প্রেমের গল্পের চেয়ে পরকীয়ার ‘মশলা’ মাখানো গল্প অনেক বেশি মুখরোচক… অনেক বেশি আকর্ষণীয়! তবে পরকীয়া মানেই অভিযোগের আঙুল বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই ওঠে পুরুষদের দিকেই। কিন্তু সমীক্ষা বলছে, পরকীয়া সম্পর্কে পুরুষদের তুলনায় মহিলারাই খুশি হন বেশি!

কানাডার একটি অনলাইন ডেটিং এবং সোশ্যাল নেটওয়ার্ক সার্ভিস অ্যাপ ‘অ্যাশলে ম্যাডিসন’ সম্প্রতি একটি সমীক্ষা চালিয়েছিল বিবাহিত পুরুষ ও মহিলাদের মধ্যে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি স্টেট ইউনিভার্সিটির সমাজতত্ত্বের অধ্যাপক অ্যালিসিয়া ওয়াকারের নেতৃত্বে প্রায় ১০০০ জনের মধ্যে এই সমীক্ষা চালানো হয়। আর তাতেই জানা যায়, পরকীয়া সম্পর্ক নাকি মহিলারাই বেশি উপভোগ করেন!

‘অ্যাশলে ম্যাডিসন’-এর এই সমীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী, যে সব মহিলারা বিবাহিত জীবনে তেমন সুখী নন, বেশীর ভাগ ক্ষেত্রে তারাই পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছেন। সমীক্ষায় জানা গিয়েছে, এই সম্পর্কের ক্ষেত্রে শরীর ছাড়া আর কিছুই তেমন গুরুত্ব পায় না। পরকীয়ায় জড়িত এই মহিলারা প্রত্যেকেই নিজেদের পছন্দ-অপছন্দ সোজা-সাপটা তাদের পরকীয়া সম্পর্কের সঙ্গীকে জানিয়ে দেন আগে ভাগেই। এই সব সম্পর্কের ক্ষেত্রে বেশির ভাগ মহিলারাই ব্যক্তি স্বাধীনতাকেই বেশি গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। অধ্যাপক ওয়াকারের মতে, নিজেদের বিবাহিত জীবনের সুপ্ত বাসনা এবং প্রসমিত কামনাকে পূরণ করতেই বেশির ভাগ মহিলারা পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। এক কথায়, নিজেদের বিবাহিত জীবনের অপূর্ণতা এবং হতাশা থেকেই বেশির ভাগ মহিলারা এই ধরনের সম্পর্কে জড়ান।

দীর্ঘদিন ভারতীয় দণ্ডবিধি অনুযায়ী, বিবাহ বহির্ভূত শারীরিক সম্পর্ককে ‘ফৌজদারি অপরাধ’ বলে গণ্য করা হত। তবে সম্প্রতি, সেপ্টেম্বর ২০১৮-এ সুপ্রিম কোর্ট পরকীয়ার ক্ষেত্রে ভারতীয় দণ্ডবিধির ওই আইনকে অসাংবিধানিক বলে রায় দিয়েছে।

রাজশাহীর সময় ডট কম  ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৯                      

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *