শিরোনাম :
চারঘাট উপজেলা আ’লীগের সহসভাপতি টিপুসহ ৯জনকে অব্যাহতি

চারঘাট উপজেলা আ’লীগের সহসভাপতি টিপুসহ ৯জনকে অব্যাহতি

নিজেস্ব প্রতিবেদক : দলীয় সিদ্ধান্ত অমাণ্য করে উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় রাজশাহীর চারঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এ্যাডঃ টিপু সুলতানসহ ৯ জনকে পদ ও দল থেকে অব্যাহতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভার সিদ্ধান্তক্রমে টিপুসহ ৯জনকে তাদের দলীয় পদ ও দল থেকে অব্যাহিত দিয়ে বহিস্কারের জন্য জেলা আওয়ামী লীগের কাছে উপজেলা কমিটির সিদ্ধান্ত রেজ্যুলেশন আকারে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ ফকরুল ইসলামকে দল থেকে মনোনয়ন দেয়া হয়। তবে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এ্যাড. টিপু সুলতান দলের সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন উত্তোলন ও জমা দেন।

এছাড়াও দলের কিছু নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ভোট প্রার্থনায় মেতে উঠেছেন। এতে করে দলের ভিতরে বিশৃংখলা শুরু হয়েছে। তারই প্রেক্ষিতে চারঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যকরী কমিটির বর্ধিত সভায় উপজেলা সহসভাপতি এ্যাড. টিপু সুলতান, সরদহ ইউনিয়ন আ”লীগের সভাপতি ইসরাইল হোসেন, সাধারন সম্পাদক খলিলুর রহমান,সাংগঠনিক সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন,৬ নং ওয়ার্ড সভাপতি শাহানাজ আলী, নিমপাড়া ২নং ওয়ার্ডের সভাপতি জাকির হোসেন, ভায়ালক্ষীপুর আহাদ আলী,শলুয়া ইউনিয়ন সাংগঠনিক সম্পাদক কাজিমুদ্দিন ও সদস্য আশরাফুল ইসলামকে অব্যাহত দিয়ে বহিষ্কারের জন্য জেলা আওয়ামীলীগের নিকট মতামত পাঠানো হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, চারঘাট-বাঘার সাবেক সাংসদ আলহাজ¦ রায়হানুল হক রায়হান। এসময় অন্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন, দলীয় প্রার্থী ফকরুল ইসলাম, পৌলসভার সাবেক মেয়র নারগিছ খাতুন, বাগমারা উপজেলা চেয়ারম্যান জাকিরুল আলম সান্টু,ভায়ালক্ষিপুর ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলী বুলবুল, সরদহ ইউপি চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান মধু, ইউসুফপুর ইউপি চেয়ারম্যান শফিউল আলম রতন, নিমপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মনিরুজ্জামরন, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন, সাধারন সম্পাদক একরামুল হক, যুবলীগের সভাপতি কাজী মাহমুদুল হাসান মামুন, ছাত্রলীগের সভাপতি আল মামুন তুষার,সাধারণ সম্পাদক রায়হানুল হক রানা, স্বেচ্ছা সেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মমিন প্রমুখ।

চারঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি টিপুসহ অন্যদের অব্যাহত প্রসঙ্গে জানতে চাইলে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, বহিস্কারের সিদ্ধান্ত উপজেলা কমিটি নিতে পারেন না। তবে তারা মতামত দিয়ে জেলায় পাঠাবে। তবে এখন পর্যন্ত এমন কোন চিঠি আমি হাতে পায়নি।

এ বিষয়ে এ্যাড: টিপু সুলতান বলেন, আমি দলীয় শৃংখলা ভঙ্গ করি নাই। আমি নির্বাচন করছি। নির্বাচন করবো। আমি বিদ্রোহী প্রার্থী নয়, আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী। ফলে আমাকে জেলা আওয়ামীলীগও বহিস্কার করবে না বলে আমি বিশ্বাস করি।

মতিহার বার্তা ডট কম ০১ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *