শিরোনাম :
সাধারণ মানুষ সমাবেশ প্রত্যাখান করেছে, রাসিক মেয়র লিটন রাজশাহী নগরীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির গণসমাবেশ শুরু কাজ হল না বিষেও! আসামির মৃত্যু নিশ্চিত করতে ভয়ঙ্কর পন্থা নিলেন জেল কর্তৃপক্ষ সঙ্গ পেতে মহিলাকে নিয়ে কলকাতার হোটেলে, প্রতিশ্রুতি মতো টাকা না দেওয়ায় ধৃত ৩ বাংলাদেশি প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে এখন লজ্জায় মুখ দেখাতে পারছেন না স্পেনের কোচ, কেন? বদলের ব্রাজিলে নজিরের মুখে দাঁড়িয়ে আলভেস, পেলেকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নামছে সেলেকাওরা বিশ্বকাপে নেমারের খেলার সম্ভাবনা নিয়ে এ বার মুখ খুললেন তাঁর বাবা রাজশাহীতে আনোয়ার হোসেন উজ্জলের নেতৃত্বে হাজার হাজার মানুষের মিছিল অনুষ্ঠিত শীত উপেক্ষা করে খোলা মাঠে রাত কাটালো বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে পথে পথে বাধা
ধর্ষণ করে মহিলার গায়ে আগুন দিল ধর্ষক

ধর্ষণ করে মহিলার গায়ে আগুন দিল ধর্ষক

মতিহার বার্তা ডেস্ক :  ধর্ষণ করে মহিলার গায়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল ধর্ষক। কিন্তু দুঃস্বপ্নেও ভাবতে পারেনি, সে আগুন আসলে তার নিজেকেই পুড়িয়ে মারার অস্ত্র হবে। ধর্ষিতা মহিলা হাসপাতালে লড়াই করছেন জীবন-মরণ, ধর্ষক মারা গেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, মালদহের মানিকচক থানার মথুরাপুর সুভাষ কলোনি এলাকায় পিন্টু শেখ নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে। পিন্টু চাঁচলের বাসিন্দা। সুভাষ কলোনি এলাকার এক মহিলার সঙ্গে দীর্ঘ দিনের পরিচিতি ছিল তার। ওই মহিলার স্বামী মারা গেছেন প্রায় তিন বছর আগে। তাঁর চার মেয়ে। এক মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে।দু’মেয়ে পড়াশোনার জন্য হোস্টেলে থাকে। আর এক মেয়ে চাকরি সূত্রে বাইরে থাকেন। বাড়িতে ওই মহিলার এক দেওর থাকেন, তিনি অন্ধ।

স্থানীয় সূত্রের খবর, সোমবার বিকেলে হঠাৎই অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় চিৎকার করতে করতে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসেন ওই মহিলা। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মহিলাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় বাড়ির ভিতর থেকে পাওয়া যায় পিন্টু শেখ নামের যুবককেও। হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাদের চিকিৎসা শুরু হয়। ভোর রাতে মারা যায় পিন্টু।

আক্রান্ত ওই মহিলা জানিয়েছেন, অভিযুক্ত যুবকের সঙ্গে দীর্ঘদিনের পরিচিতি রয়েছে তাঁর।এ দিন দুপুরে ওই যুবক তাঁর বাড়ি এসে দুপুরে ভাত খায়। “তার পরেই ও আচমকা আমার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে, জোর করে ধর্ষণ করে।” –দাবি ওই মহিলার। অভিযোগ, এর পরে তাঁর গায়ে তেল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয় পিন্টু। সে পালাতে গেলে, ওই অবস্থায় কী করবেন বুঝতে না পেরে তিনি পিন্টুকেই জড়িয়ে ধরেন। আগুন লেগে যায় তার গায়েও। এর পরে কোনও ক্রমে তিনি বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এলে প্রতিবেশীরা মহিলার গায়ে জল ঢেলে আগুন নেভান। একটি সূত্র অবশ্য বলছে, পিন্টু নিজেই আত্মহত্যা করতে চেয়েছিল ওই মহিলাকে পোড়ানোর পরে।

মানিকচক থানার পুলিশ জানিয়েছে, দু’জন আগুনে পুড়ে যাওয়ার ঘটনা সামনে এসেছে। দু’জনকেই চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হলে এক জনের মৃত্যু হয়। দগ্ধ ওই মহিলা একটু সুস্থ হলেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে তাঁকে। মৃত যুবকের পরিবারের সাথে কথা বলা হচ্ছে। এখনও কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি থানায়।

মতিহার বার্তা ডট কম ০৬ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *