শিরোনাম :
আরএমপি পুলিশের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত চারঘাটে গাঁজা- সহ ২জন মাদক কারবারীকে গ্রেফতার রাজশাহী মহানগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ১৯ রাজশাহী বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষায় বসছে এক লাখ ৩৮ হাজার ১৫৭ শিক্ষার্থী রাজশাহীতে জমেছে পশুহাট, লাখের নিচে মিলছে না কোরবানিযোগ্য গরু দ্রুত সময়ে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ বিষয়ে রাসিকের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত রোদে পোড়া কালচে ত্বক নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন? ঘরোয়া টোটকা দিচ্ছেন প্রিয়ঙ্কা চোপড়া তেল বেশি গরম করলে কি খাদ্যগুণ চলে যায়? কী বলছেন পুষ্টিবিদ‌রা? বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচের আগে ধাক্কা পাকিস্তানে, চোটে বাদ অবসর ভেঙে ফেরা ক্রিকেটার সিঙ্গাপুর, হংকংয়ের পর এ বার ভারতের মশলা নিষিদ্ধ করল পড়শি ‘বন্ধু’ দেশ
ভারতকে আর জিএসপি সুবিধা দেবে না যুক্তরাষ্ট্র

ভারতকে আর জিএসপি সুবিধা দেবে না যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ভারতের শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার বা জিএসপি সুবিধা প্রত্যাহার করে নিচ্ছে ওয়াশিংটন।

যুক্তরাষ্ট্রে বর্তমানে কোনো রকম শুল্ক ছাড়াই ভারতের ৫.৬ বিলিয়ন ডলারের পণ্য সামগ্রী প্রবেশ করছে। এ-সুবিধা প্রত্যাহার করে নিচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

একইসঙ্গে তুরস্ককে দেওয়া শুল্ক সুবিধাও প্রত্যাহার করতে যাচ্ছেন তিনি। নিজের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে মার্কিন কংগ্রেসকে লেখা চিঠিতে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ভারত এতদিন জেনারালাইজড সিস্টেম অব প্রেফারেন্স-জিএসপি’র মধ্যে ছিল। এখন সেটি প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে। ভারত সারা পৃথিবীতে জিএসপি সুবিধাভোগী দেশগুলোর একটি।

ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত কার্যকর হলে অর্থনৈতিকভাবে নয়াদিল্লি ধাক্কা খাবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

কিন্তু কেন যুক্তরাষ্ট্র হঠাৎ করেই ভারতের জিএসপি সুবিধা বাতিল করে দিচ্ছে।

ধারণা করা হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের টেকজায়ান্ট আমাজন, ওয়ালমার্ট, বেকড, ফ্লিপকার্টের সঙ্গে ভারতীয় কম্পানিগুলো যাতে প্রতিযোগিতায় টিকতে পারে সেজন্য নতুন ই-কমার্স আইন করেছিল ভারত। সম্প্রতি তা কার্যকর হয়েছে। এই নতুন আইন করা হয়েছে বহুজাতিক টেকজায়ান্ট এবং স্থানীয় কম্পানিগুলোর মধ্যে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করতে।

যে ভেন্ডরে কম্পানির ইকুইটি স্টেক আছে তাদের পণ্য বিক্রি করতে পারবে না, এমন আইন হয়েছে ভারতে।

এর প্রতিক্রিয়ায় ট্রাম্প জিএসপি (জেনারালাইজড সিস্টেম অফ প্রেফারেন্স) থেকে ভারতকে বাদ দেওয়ার কথা বলছেন। জিএসপির আওতায় আমেরিকা উন্নয়নশীল দেশ থেকে বিনা ট্যারিফে পণ্য আমদানি করে। এই জিএসপির সবচেয়ে বড় সুবিধাভোগী ভারত। প্রায় ৫.৬ বিলিয়ন ডলারের ভারতীয় পণ্য রপ্তানি হতো আমেরিকায়। যা হুমকির মুখে পড়বে জিএসপি থেকে ভারতকে বের করে দেওয়ায়।সূত্র:কালের কণ্ঠ।

এটি করা হচ্ছে ভারতকে চাপ দিতে। যাতে ই কমার্স আইন শিথিল করে, বা বাদ দেয় তারা। এবং আমেরিকান বড় প্রযুক্তিভিত্তিক ই-কমার্সগুলো রাজত্ব করতে পারে ভারতীয় মার্কেটে।

মতিহার বার্তা ডট কম ০৬ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply