শিরোনাম :
সাধারণ মানুষ সমাবেশ প্রত্যাখান করেছে, রাসিক মেয়র লিটন রাজশাহী নগরীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির গণসমাবেশ শুরু কাজ হল না বিষেও! আসামির মৃত্যু নিশ্চিত করতে ভয়ঙ্কর পন্থা নিলেন জেল কর্তৃপক্ষ সঙ্গ পেতে মহিলাকে নিয়ে কলকাতার হোটেলে, প্রতিশ্রুতি মতো টাকা না দেওয়ায় ধৃত ৩ বাংলাদেশি প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে এখন লজ্জায় মুখ দেখাতে পারছেন না স্পেনের কোচ, কেন? বদলের ব্রাজিলে নজিরের মুখে দাঁড়িয়ে আলভেস, পেলেকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নামছে সেলেকাওরা বিশ্বকাপে নেমারের খেলার সম্ভাবনা নিয়ে এ বার মুখ খুললেন তাঁর বাবা রাজশাহীতে আনোয়ার হোসেন উজ্জলের নেতৃত্বে হাজার হাজার মানুষের মিছিল অনুষ্ঠিত শীত উপেক্ষা করে খোলা মাঠে রাত কাটালো বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে পথে পথে বাধা
অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ব্যাংক কর্মকর্তার ৫ বছরের সাজা

অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ব্যাংক কর্মকর্তার ৫ বছরের সাজা

মতিহার বার্তা ডেস্ক : যশোরে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের প্রায় ২৫ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলায় সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা মনিরুজ্জামানকে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১৬ লাখ ৪৯ হাজার ৪৮০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার যশোরের বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ফারুক হোসেন এই রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত মনিরুজ্জামান মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের যশোর আরএন রোড শাখার সাবেক জুনিয়র অফিসার (ক্যাশ ইনচার্জ)। তিনি কুষ্টিয়ার কুমারখালি উপজেলার গোগরা চাঁদপুর গ্রামের মীর মর্তুজা আলীর ছেলে।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পাবলিক প্রসিকিউটর সিরাজুল ইসলাম বলেন, ২০১৪ সালের ১০ মার্চ মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের যশোর আরএন রোড শাখায় কর্মরত জুনিয়র অফিসার মনিরুজ্জামানসহ দুজনের বিরুদ্ধে ২৪ লাখ ৬৯ হাজার ৪৮০ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে কোতোয়ালি থানায় মামলা হয়। মামলার বাদী ছিলেন ব্যাংকের শাখা ম্যানেজার মিজানুর রহমান। এরপর ২০১৪ সালের ১২ মার্চ ৮ লাখ ২০ হাজার টাকা ফেরত দেন।

২০১৬ সালের ১৭ আগস্ট মনিরুজ্জামানকে অভিযুক্ত করে দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত কার্যালয় ঢাকা-১ এর সহকারী পরিচালক আবদুল ওয়াদুদ আদালতে চার্জশিট দেন। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত মনিরুজ্জামানকে ৫ বছরে সশ্রম কারাদণ্ড ও ১৬ লাখ ৪৯ হাজার ৪৮০ টাকা জরিমানা করেছে। আসামি মনিরুজ্জামান কারাগারে আছেন।

মতিহার বার্তা ডট কম ০৭ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *