শিরোনাম :
চিরবিদায় নিলেন গজ়ল শিল্পী পঙ্কজ উধাস বাঘায় ফেনসিডিল-সহ গ্রেফতার- ৩ রাজশাহী এডিটরস ফোরামের সভাপতি লিয়াকত সম্পাদক অপু সিঙ্গাপুরের স্কুল থেকে পড়াশোনা শেষ হওয়ার আগেই তাড়িয়ে দেওয়া হয় কাজল-কন্যা নিসাকে! বচ্চনদের সঙ্গে বনিবনা হচ্ছে না ঐশ্বর্যার, এ বার আরাধ্যাকে নিয়ে মুখ খুললেন নব্যা ইউক্রেন যুদ্ধের দ্বিতীয় বর্ষপূর্তিতে হামলার তীব্রতা বাড়াল রাশিয়া, নিশানায় ওডেসা-সহ বিভিন্ন শহর ইজ়রায়েলের আচরণে ক্ষুব্ধ আমেরিকা গাজ়ায় যুদ্ধের প্রতিবাদ, ওয়াশিংটনের ই‌জ়রায়েলি দূতাবাসের সামনে গায়ে আগুন, আমেরিকার সেনার ‘ভারতীয় সেনাদের নিয়ে মিথ্যা বলছেন মুইজ্জু’! এ বার প্রাক্তন মন্ত্রীর তোপের মুখে মলদ্বীপের প্রেসিডেন্ট মাদক ব্যবসা : দেনাদারের বাসায় পাওনাদারের লাশ
মোদীকে পাকিস্তানের পোস্টার বয় আক্ষায়ীত করলেন : রাহুল

মোদীকে পাকিস্তানের পোস্টার বয় আক্ষায়ীত করলেন : রাহুল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিরোধীদের প্রতি নরেন্দ্র মোদীর আক্রমণের জবাব দিলেন রাহুল গাঁধী। পুলওয়ামায় জঙ্গি হানা এবং বালাকোটের ঘটনার পরে জাতীয়তাবাদকে তুঙ্গে নিয়ে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। বিরোধীরা সামান্য প্রশ্ন তুললেই তাঁদের গায়ে দেগে দিচ্ছেন ‘পাকিস্তানের পোস্টার বয়’ তকমা। রাহুল আজ পাল্টা বললেন, ‘‘নরেন্দ্র মোদীই পাকিস্তানের পোস্টার বয়’’।

গত কালই বিরোধী নেতাদের সঙ্গে কথা সেরে রেখেছিলেন রাহুল। দলের নেতাদেরও বলেছিলেন, ‘‘যুদ্ধবিরতি ঢের হয়েছে। পুলওয়ামার পর কংগ্রেস চুপ থেকেছে, কিন্তু প্রধানমন্ত্রী এক নিমেষের জন্য রাজনীতি ছাড়েননি। ফের পুরনো বিষয়গুলি ফিরিয়ে এনে মোদীকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর

সময় এসেছে।’’ আর আজ সাংবাদিক বৈঠকে তাঁর মন্তব্য, যে ভাবে ‘অচ্ছে দিন’, রোজগার, কৃষকদের ন্যায্য দাম, ব্যবসা গায়েব হয়েছে, সে ভাবেই গায়েব হল রাফাল ফাইল। সে ফাইলই বলছে, নরেন্দ্র মোদী ‘বাইপাস সার্জারি’ করে অনিল অম্বানীকে ৩০ হাজার কোটি টাকা পাইয়ে দিতে সমঝোতা করেছেন। ফাইল চুরি গেলে সিএজি কী করে রিপোর্ট তৈরি করল? সুপ্রিম কোর্টেই বা কী দেখানো হল?

অরুণ জেটলি পাল্টা বলেন, ‘‘দেশের নিরাপত্তা থেকে মানুষের দৃষ্টি ঘোরাতেই ভুয়ো অভিযোগ করছেন কংগ্রেস সভাপতি। এতে পাকিস্তানে তাঁরা টিআরপি পাচ্ছেন। কিন্তু দেশে তাঁদের বিরুদ্ধে ঘৃণা বাড়ছে।’’ জবাবে কংগ্রেস নেতা বি কে হরিপ্রসাদ বলেন, ‘‘পুলওয়ামা পরবর্তী ঘটনাবলি থেকে স্পষ্ট নরেন্দ্র মোদী আর পাকিস্তানের মধ্যে ম্যাচ গড়াপেটা হচ্ছে।’’

তাতে অবশ্য বিতর্ক বাড়ে। সেই বিড়ম্বনা কৌশলে সামলে রাহুল বলেন, ‘‘আমাদের দলের নানা লোক নানা মন্তব্য করছেন। আমি তার মধ্যে যাব না। কিন্তু নিহত জওয়ানদের পরিবারই বলছে, সরকার দেখাক আসলে কী হয়েছে।’’ এর পরই মোদীর প্রতি তাঁর কটাক্ষ, ‘‘আমরা তো নওয়াজ শরিফের পরিবারের বিয়েতে যাইনি। পঠানকোটে আইএসআই-কে আমন্ত্রণ জানাইনি। যিনি করেছেন, তিনিই পাকিস্তানের পোস্টার বয়।’’

মতিহার বার্তা ডট কম ০৮ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply