শিরোনাম :
রাজশাহীতে ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতির বহিস্কার দাবিতে এলাকাবাসীর ঝাড়ু মিছিল

রাজশাহীতে ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতির বহিস্কার দাবিতে এলাকাবাসীর ঝাড়ু মিছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী মহানগরীর ২৮ নং ওয়ার্ড (পশ্চিম) যুবলীগ সভাপতি মিলনের বহিস্কার ও তার সহযোগীদের শাস্তির দাবিতে ঝাড়ু মিছিল ও মানববন্ধন করেছে তালাইমারী এলাকাবাসী।

আজ রবিবার বেলা ১১টার দিকে মিছিলটি নগরীর তালাইমারী বালুর ঘাট থেকে শুরু করে ট্রাফিক মোড় প্রদক্ষিণ করে সেখানে মানববন্ধন করে প্রায় তিন শতাধিক এলাকাবাসী।

এসময় ২৮ নং ওয়ার্ড (পশ্চিম) যুবলীগ সভাপতি মিলনসহ তার সহযোগীদের বহিস্কার ও শাস্তির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেয় এলাকাবাসীরা। এতে নগরীর ব্যস্ততম রাস্তায় ব্যপক যানজোটের সৃষ্টি হয়। পরে ট্রাফিক সার্জেন ও মতিহার থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করে।

এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধীক স্থানীয়রা জানায়, তালাইমারী ট্রাফিক মোড়ের বিভিন্ন দোকানে চাঁদাবাজি মিলনের নিত্য দিনের ঘটনা। এছাড়াও এলাকায় কেউ বাড়ি ঘর নির্মান করলে তাকে চাঁদা দিতেই হবে। চাঁদা না দিলে নানা ধরনের সমস্যার সৃষ্টি করে যুবলীগ সভাপতি মিলন ও তার সহযোগীরা।

তারা আরো বলেন, মাদকের টাকা যোগাড় করতে যত রকম অপকর্ম আছে মিলন ও তার সহযোগীরা সে কাজগুলো করে থাকে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাজশাহী মহানগর যুবলীগ সভাপতি মোঃ রমজান আলী জানান, মিলনের বিরুদ্ধে দলীয় ভাবে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য, তালাইমারী বাজারের এক মাংশ ব্যবসায়ী আলমগীর কসাইয়ের নিকট চাঁদা নেওয়াকে কেন্দ্র করে ২৮ নং ওয়ার্ড (পশ্চিম) যুবলীগ সভাপতি মিলন ও তার সহযোগীরা রাজন (২০) নামের এক যুবককে হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। গতকাল শনিবার দুপুর ২টার দিকে নগরীর মতিহার থানাধীন তালাইমারী বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আহত রাজন নগরীর মতিহার থানাধীন পাওয়ার হাউজ পাড়ার রাজ্জাকের ছেলে।

হেলাল নামের এক যুবক জানায়, গত শুক্রবার আমার ভাই আলমগীর কসাই একটি গরু জবাই করে তালাইমারী বাজারে মাংস বিক্রি করে। এ ঘটনায় ২৮ নং ওয়ার্ড (পশ্চিম) যুবলীগ সভাপতি মিলন ও তার সহযোগী টুটুল, সেলিম, রতন আমাদের বাড়িতে এসে আমার ভাই আলমগীরকে বলে, তুই যে গরুটি জবাই করে মাংস বিক্রি করেছিস সেই গরুর পেটে বাচ্চা ছিল এই বলে বিভিন্ন রকম ভয়ভীতি ও গালিগালাজ করে নগদ ৮ হাজার টাকা নিয়ে যায়।

পরে ওই দিনই দুপুর ২টার দিকে আবারও তারা আমাদের বাড়িতে আসে এবং ১০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তালাইমারী বাজার কমিটির পরামর্শ অনুযায়ী মিলন ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে মতিহার থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেন কসাই আলমগীর।

আর এ খবর মিলনের কাছে পৌঁছা মাত্র দেশীয় অস্ত্র রামদা হাসুয়া নিয়ে মিলন ও তার সহযোগীরা আলমগীর কসাইয়ের বাড়িতে হামলা চালায়। প্রাণে বাঁচাতে আলমগীর ঘরে লুকিয়ে পড়ে। এসময় আলমগীরের সাথে সঙ্গো দেওয়ার অপরাধে মিলন ও তার সহযোগীরা রাজনকে হাসুয়া ও রামদা দিয়ে কোপায়। এতে রাজনের লিঙ্গ কেটে রক্ত বেরোতে থাকে।

এ সময় এলাকাবাসী মিলন ও তার সহযোগীদের তাদের ধাওয়া দিলে তারা পালিয়ে যায়। পরে রাজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত শনিবার বিকাল ৪টার দিকে তালাইমারীসহ আশপাশের এলাকাবাসীরা ২৮ নং ওয়ার্ড (পশ্চিম) যুবলীগ সভাপতি মিলনকে বহিস্কার ও তার সহযোগীদের শাস্তিরে দাবিতে একটি বিক্ষোভ বের করে।

মিছিলে যুবলীগ, আ’লীগ কর্মীসহ এলাকা ও এর আশপাশের শতাধিক নারী-পুরুষ অংশ গ্রহণ করে।

মতিহার বার্তা ডট কম১০ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *