শিরোনাম :
২৪ ঘণ্টার মধ্যে খুলে নিতে হবে মমতার ছবিসহ রাস্তার ব্যানার

২৪ ঘণ্টার মধ্যে খুলে নিতে হবে মমতার ছবিসহ রাস্তার ব্যানার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতে লোক সভা নির্বাচনের দিন ঘোষণা করা হয়েছে। ঘোষণা হওয়ার সাথে সাথে চালু হয়ে গেল নির্বাচন আচরণ বিধি৷ ফলে রাস্তার ওপর যে সব ফেস্টুন ব্যানার আছে তা খুলে ফেলতে হবে৷ নিজেরা না খুলে নিলে সেগুলি খোলার দায়িত্ব নাকি নির্বাচন কমিশনের৷

নির্বাচনের দিন ঘোষণার পর বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী জানান, ভোট ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে চালু হয়ে যায় নির্বাচন আচরন বিধি৷ সুতরাং রাস্তার ওপর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তার ভাইপোসহ অন্যান্য যে ফেস্টুন ব্যানার রয়েছে তা আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে খুলে ফেলতে হবে৷ কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকাসহ গ্রামগঞ্জে এদের ফেস্টুন ব্যানার রয়েছে৷ নিজেরা যদি না খুলে তাহলে নির্বাচন কমিশনকেই দায়িত্ব নিয়ে সেগুলি খুলে ফেলতে হবে৷

অভিযোগ,বাড়ির বাইরে বের হলেই চোখে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তার ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবিসহ ব্যানার ৷ কোথাও কোথাো রাস্তার ওপর রয়েছে তৃণমূল নেতা মন্ত্রীদের ছবিসহ ব্যানার ৷ কয়েক মাস আগে মেদিনীপুরে একটি সভায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এসেছিলেন৷ সেদিন মমতা ব্যানার্জীকে কটাক্ষ করে তিঁনি বলেন, আমি মমতা দিদির কাছে কৃতজ্ঞ কারণ উনি স্বয়ং নিজের হাতজোড় করা ছবি রাস্তায় ব্যানার লাগিয়ে আমাকে স্বাগত জানিয়েছেন। সূত্রের খবর, মেদিনীপুরে প্রধানমন্ত্রী আসার আগে তৃণমূল সেখানকার রাস্তাঘাট মমতার ছবি ও ব্যানারে ভরিয়ে দিয়েছিল।

সাত দফা ভোট নিয়ে সুজন চক্রবর্তী বলেন, এই রাজ্যে সাত দফা ভোট সম্মানের পক্ষে ভালো নয়৷ অসম্মানজনক জায়গাটা তৈরি করেছে সরকার নিজেই৷ আমরা এখন চাইবো নির্বাচন কমিশন সুনিশ্চিত করুক,মানুষ যাতে নিশ্চিন্তে তার ভোট দিতে পারে৷

মতিহার বার্তা ডট কম ১০ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *