শিরোনাম :
রাজশাহীতে বালু মজুদ করতে ১০ একর জমির কাঁচা ধান সাবাড় বিশ্বের দীর্ঘতম গাড়িতে রয়েছে সুইমিং পুল, হেলিপ্যাডও ছুটির দিনে হেঁশেলে খুব বেশি সময় কাটাতে চান না? রবিবারে পেটপুজো হোক তেহারি দিয়েই দাম দিয়ে ছেঁড়া, রংচটা জিন্‌স কিনবেন কেন? উপায় জানা থাকলে নিজেই বানিয়ে ফেলতে পারেন উন্মুক্ত বক্ষখাঁজ, খোলামেলা পিঠ, ভূমির মতো ব্লাউজ় পরেই ভিড়ের মাঝে নজরে আসতে পারেন আপনিও স্পর্শকাতর ত্বকের জন্য বাড়িতেই স্ক্রাব তৈরি করে ফেলতে পারেন, কিন্তু কতটা চালের গুঁড়ো দেবেন? গরমে শরীর তো ঠান্ডা করবেই সঙ্গে ত্বকেরও যত্ন নেবে বেলের পানা, কী ভাবে বানাবেন? গাজ়া এবং ইরানে হামলা চালাতে ইজ়রায়েলকে ফের ৮ হাজার কোটি টাকার অস্ত্রসাহায্য আমেরিকার! ইজ়রায়েলকে জবাব দিতে সর্বোচ্চ নেতার ফতোয়ার কথাও ভুলতে চায় ইরান, এ বার কি পরমাণু যুদ্ধ? দিনাজপুরে ড্রাম ট্রাকসহ ১০০ কেজি গাঁজা জব্দ, গ্রেপ্তার ৩
বাগেরহাটে আড়াই মাস বয়সী শিশু চুরি, ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি

বাগেরহাটে আড়াই মাস বয়সী শিশু চুরি, ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি

মতিহার বার্তা ডেস্ক :ঘুমন্ত মা-বাবার কোল থেকে আড়াই মাস বয়সী শিশু সন্তান চুরি হয়েছে। রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ৩ টার দিকে বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল বিশারীঘাটা গ্রামে রোমহর্ষক এই ঘটনাটি ঘটে। অপহৃত শিশুর নাম আবদুল্লাহ। সে ওই গ্রামের দলিল লেখক সোহাগ হাওলাদারের ছেলে। রাতের আধারে ঘরের গ্রিল কেটে আড়াইমাস বয়সী শিশু আব্দুল্লাহকে নিয়ে যায় বলে জানা গেছে।

খবর পেয়ে সোমবার দুপুরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এদিকে শিশুটির মুক্তির জন্য দুর্বৃত্তরা মোবাইল ফোনে দশ লাখ টাকা ‘মুক্তিপণ’ দাবি করেছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

শিশু আবদুল্লাহর পিতা সোহাগ বলেন, সোমবার ভোররাত ৩টার দিকে অসুস্থ্য ছেলেকে ওষুধ খাওয়ানো হয়। এর পরে তাদের অপর সন্তান সুমাইয়া ও আব্দুল্লাহকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন তারা। রাত সাড়ে ৪ টায় জেগে দেখেন, বিছানায় তার শিশু সন্তান আব্দুল্লাহ নেই। এমনকি পাশে রাখা মোবাইল ফোনটিও ছিল না। পরে খোঁজাখুজি করতে গিয়ে দেখতে পান জানালার গ্রীল খোলা, দরজা খোলা।
তিনি আরো বলেন, ঘরের অন্যান্য কক্ষের সকল দরজা বাইরে থেকে আটকিয়ে রেখে যায় দুর্বৃত্তরা।

সোহাগের স্ত্রী রেশমা বেগম বলেন, ওষুধ খাওয়ানোর পরে আব্দুল্লাহকে বুকের দুধ খাওয়াতে খাওয়াতে তারা ঘুমিয়ে পড়েন। সে আমার কোলের মধ্যেই ছিল। কিভাবে আমার সন্তানকে নিয়ে গেছে টের পাইনি।

এ বিষয়ে মোরেলগঞ্জ থানার ওসি কেএম আজিজুল ইসলাম বলেন, শিশুটিকে উদ্ধারের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। কারা কি কারণে এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা এই মূহুর্তে স্পষ্ট করে বলা যাচ্ছে না।

মতিহার বার্তা ডট কম ১১ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply