শিরোনাম :
আরএমপি পুলিশের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত চারঘাটে গাঁজা- সহ ২জন মাদক কারবারীকে গ্রেফতার রাজশাহী মহানগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ১৯ রাজশাহী বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষায় বসছে এক লাখ ৩৮ হাজার ১৫৭ শিক্ষার্থী রাজশাহীতে জমেছে পশুহাট, লাখের নিচে মিলছে না কোরবানিযোগ্য গরু দ্রুত সময়ে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ বিষয়ে রাসিকের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত রোদে পোড়া কালচে ত্বক নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন? ঘরোয়া টোটকা দিচ্ছেন প্রিয়ঙ্কা চোপড়া তেল বেশি গরম করলে কি খাদ্যগুণ চলে যায়? কী বলছেন পুষ্টিবিদ‌রা? বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচের আগে ধাক্কা পাকিস্তানে, চোটে বাদ অবসর ভেঙে ফেরা ক্রিকেটার সিঙ্গাপুর, হংকংয়ের পর এ বার ভারতের মশলা নিষিদ্ধ করল পড়শি ‘বন্ধু’ দেশ
সুস্থ থাকতে শরীরে ২০ রকম ফলের রসের ইনজেকশন দিলেন মহিলা, তার পর…

সুস্থ থাকতে শরীরে ২০ রকম ফলের রসের ইনজেকশন দিলেন মহিলা, তার পর…

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : চিকিৎসার জন্য আধুনিক পদ্ধতিতে বিশ্বাস নেই তাঁর। প্রাচীন প্রচলিত ঘরোয়া পদ্ধতিই তাঁর পছন্দ রোগ মুক্তির দাওয়াই হিসেবে। কিন্তু সেই পদ্ধতি প্রয়োগ করতে গিয়েই জীবন বিপন্ন করে বসেছিলেন চিনের এক মহিলা। ৫১ বছরের ওই মহিলার নাম জেং বলে জানা গিয়েছে।

সংবাদ সূত্রের খবর, জেং মনে করতেন ফলের রস স্বাস্থ্যের জন্য ভাল হলেও সরাসরি রক্তে মিশলে তা আরও ভাল কাজ করতে পারে। তাই প্রায় ২০ ধরনের ফলের রসের একটি মিশ্রণ তৈরি করেন তিনি। পান না করে, সেই ফলের রস সরাসরি সিরিঞ্জের মধ্যে ভরে ইনজেকশন নেন তিনি। কিন্তু তার ফল হয় মারাত্মক। অসম্ভব চুলকানি শুরু হয় সারা গায়ে। মারাত্মক বেড়ে যায় শরীরের তাপমাত্রাও। মৃতপ্রায় অবস্থায় ওই মহিলাকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ)-এ।

চিনের হুনান প্রদেশের যিয়াংগান ইউনিভার্সিটি হাসপাতালের ডাক্তাররা বলছেন, এর ফলে ওই মহিলার যকৃত, কিডনি, হৃদপিণ্ড এবং ফুসফুস মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এই ঘটনা সামনে আসতেই শোরগোল পড়ে যায় চিনা সামাজিক মাধ্যমে। অনেকেই বলতে থাকেন, চিনে বহু মানুষের কাছেই যে এখনও স্বাস্থ্য রক্ষার নিরাপদ উপায় সম্পর্কে সঠিক তথ্য নেই, এই ঘটনায় তা প্রমাণিত। আধুনিক চিকিৎসার ব্যাপারে মানুষকে আরও বেশি করে জানানোর প্রয়োজনীয়তার কথাও বলেন অনেকে। সদ্য এখন হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে নিজের বাড়িতে ফিরে গেছেন জেং।

মতিহার বার্তা ডট কম  ২০ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply