শিরোনাম :
সাধারণ মানুষ সমাবেশ প্রত্যাখান করেছে, রাসিক মেয়র লিটন রাজশাহী নগরীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির গণসমাবেশ শুরু কাজ হল না বিষেও! আসামির মৃত্যু নিশ্চিত করতে ভয়ঙ্কর পন্থা নিলেন জেল কর্তৃপক্ষ সঙ্গ পেতে মহিলাকে নিয়ে কলকাতার হোটেলে, প্রতিশ্রুতি মতো টাকা না দেওয়ায় ধৃত ৩ বাংলাদেশি প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে এখন লজ্জায় মুখ দেখাতে পারছেন না স্পেনের কোচ, কেন? বদলের ব্রাজিলে নজিরের মুখে দাঁড়িয়ে আলভেস, পেলেকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নামছে সেলেকাওরা বিশ্বকাপে নেমারের খেলার সম্ভাবনা নিয়ে এ বার মুখ খুললেন তাঁর বাবা রাজশাহীতে আনোয়ার হোসেন উজ্জলের নেতৃত্বে হাজার হাজার মানুষের মিছিল অনুষ্ঠিত শীত উপেক্ষা করে খোলা মাঠে রাত কাটালো বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে পথে পথে বাধা
রাজশাহীতে সাব রেজিষ্টারের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ

রাজশাহীতে সাব রেজিষ্টারের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ

কাজিম বাবু : আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সোনালী খবর পত্রিকায় শেষের পাতায় ৬ ও ৭ কলামে সচিব ও আইজি আরের নির্দেশনা মানেনা পবা সাব রেজিষ্টার শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ করা হয় । যাহা সম্পুর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন পবা সাব রেজিষ্টার রাশিদা ইয়াসমিন মিলি ।

তিনি বলেন, এ সংবাদের প্রতিবেদক  আমাকে ফোনে ভয় দেখিয়ে বলেন, পবা উপজেলার এলজিডির ঠিকাদারের আন্ডারে রাস্তার যে কাজগুলি হয়েছে  ৪/৫ মাস আগে সে নিউজ আমি করেছিলাম।

৫ শ মিটার রাস্তা যেখানে ১০ লক্ষ টাকা খরচ নাই সেখানে লুটপাট করা হয়েছে।  আপনার অফিসে দুর্নীতি হচ্ছে শুনে আমি আপনার অফিসে গেলাম ।

 আপনার বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করতে আমাকে অনেক টাকা ইনভেস্ট করতে হয়েছে ।

এ বিষয়ে আপনার অফিসে  তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে আমাকে আপনার এজলাসে ঢুকতে দেয়া হয়নি এবং আপনার অফিসের স্টাফ আমার সাথে খারাপ আচরন করেছে ।

এর বিপরিতে আমি তাকে ইউএনও বা জেলা রেজিষ্ট্রার এর নিকট লিখিত অভিযোগ করার কথা বল্লে তিনি বলেন, জেলা রেজিষ্ট্রারের প্রয়োজন হয়নি। আপনি সে সময় ছিলেন না ।

আমরা একটা নিউজ করলে তখন ডিসি ,জেলা রেজিষ্ট্রার এবং আপনার সাক্ষাতকার নিবো। যেমন আপনাকে বলবো আপনি এ কাজ করেছেন কি না ? অপনি যেটা বলবেন সেটায় আমি লেখবো বলেন এ প্রতিবেদক।

আমাদের একটি গ্রুপ আছে  আপনার বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করতে সিনিয়র জুনিয়র,সবাই মিলে অনেক টাকা ইনভেস্ট করেছি !

তিনি আরো বলেন, আপনাদের যে সভাপতি আছে তিনি আগে বিএনপি করতেন এখন আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে দুর্নীতি করছেন।   এছাড়াও তিনি অনেক অবান্তর প্রশ্ন করেন।

সাব রেজিষ্টার রাশিদা ইয়াসমিন মিলি বলেন, আমাদের অফিসে সমস্যা কি ? উত্তরে প্রতিবেদক বলেন,  সমস্যা অনেক যে যার মতো ইনকাম করে খাচ্ছে । 

এছাড়াও সাংবাদিক পরিচয়ধারি এ প্রতিবেদক অনেক অসংলগ্ন প্রশ্ন করেন। আমি সন্ধিহান যে সে আদৌ সাংবাদিক কি না ? তিনি আমার মোবাইল ফোনে সাক্ষাৎকার নিয়েছেন ২১ মিনিট ৫৭ সেকেন্ড, কিন্তু তার মনগড়া নিউজে আমার কোন বক্তব্য লেখেননি !

পরিশেষে সাব রেজিষ্টার বলেন আমার উর্দ্ধতন কর্মকর্তার সাথে আলাপ করে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের জন্য বিজ্ঞ আদালতের দারস্থ হবো।

এ বিষয়ে রাজশাহী জেলা রেজিষ্ট্রার মোঃ আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমার যে কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে, তিনি গুড অফিসার। তার বিরুদ্ধে কোন প্রকার অভিযোগ আমাদের অফিসে নাই।

তিনি আরো বলেন,যারা এ সংবাদ প্রকাশ করেছে তারা একটি সংঘবদ্ধ (সিন্ডিকেট) প্রতারক চক্র । তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা নেয়ার কথাও বলেন তিনি।

মতিহার বার্তা ডট কম- ২১ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *