শিরোনাম :
সাধারণ মানুষ সমাবেশ প্রত্যাখান করেছে, রাসিক মেয়র লিটন রাজশাহী নগরীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির গণসমাবেশ শুরু কাজ হল না বিষেও! আসামির মৃত্যু নিশ্চিত করতে ভয়ঙ্কর পন্থা নিলেন জেল কর্তৃপক্ষ সঙ্গ পেতে মহিলাকে নিয়ে কলকাতার হোটেলে, প্রতিশ্রুতি মতো টাকা না দেওয়ায় ধৃত ৩ বাংলাদেশি প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে এখন লজ্জায় মুখ দেখাতে পারছেন না স্পেনের কোচ, কেন? বদলের ব্রাজিলে নজিরের মুখে দাঁড়িয়ে আলভেস, পেলেকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নামছে সেলেকাওরা বিশ্বকাপে নেমারের খেলার সম্ভাবনা নিয়ে এ বার মুখ খুললেন তাঁর বাবা রাজশাহীতে আনোয়ার হোসেন উজ্জলের নেতৃত্বে হাজার হাজার মানুষের মিছিল অনুষ্ঠিত শীত উপেক্ষা করে খোলা মাঠে রাত কাটালো বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে পথে পথে বাধা
দলীয় কার্যালয়ে ধর্ষণের শিকার এসএফআই কর্মী

দলীয় কার্যালয়ে ধর্ষণের শিকার এসএফআই কর্মী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আজ থেকে এক বছর পুর্বে ছাত্র সংগঠনের সদস্য ২৩- এর যুবতীকে ধর্ষণ করেছিল সিপিএম পার্টির নেতা। তাও আবার পার্টি অফিসের ভিতরেই। ঘটনাটি ঘটে বাম শাসিত রাজ্য কেরলের পালাক্কড় এলাকায়। প্রায় এক বছর পরে শনিবার সেই অভিযুক্ত নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বর্তমানে যে রাজ্যে ক্ষমতায় রয়েছে বাম দলেরা। সিপিএম পার্টি অফিসের মধ্যেই ছাত্র সংগঠনের এক কর্মীকে ধর্ষণের শিকার হতে হয়। সেই ঘটনার জেরে ধর্ষিত মহিলা এক কন্যা সন্তানের জন্মও দিয়েছিলেন। সেই সময়েই বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে।

অভিযোগ, গত বছরের জুন মাসে কলেজের ম্যাগাজিনের জন্য লেখা জোগার করতে পার্টি অফিসে গিয়েছিলেন ওই যুবতী। সেখানে তাঁকে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করতে বলা হয়। সেই সময়ে অভিযুক্ত ব্যক্তি তাঁকে পানীয় খেতে দেয়। এবং সেই পানীয় খাওয়ার পরেই জ্ঞান হারান বছর ২৩-এর যুবতী। সেই সময়েই অভিযুক্ত ব্যক্তি তাঁকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। পানীয়তে কিছু মেশানো ছিল বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

সেই ঘটনার কারণে যুবতী গর্ভবতী হয়ে পড়েন বলে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ করে জানিয়েছেন যুবতী। চলতি মাসের ১৬ তারিখে এক কন্যা সন্তান প্রসব করেন অভিযগকারী। ওই দিনেই সদ্যজাত কন্যাকে পালাক্কড় পুরসভার অফিসে ফেলে চলে যান তিনি। কিন্তু বিষয়টি গোপন থাকেনি। পুলিশ তদন্তে নেমে মহিলার খোঁজ পেয়ে যায় এবং তাঁর বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে।

জেরায় শাসক সিপিএমের পার্টি অফিসে ধর্ষণের কথা জানায় অভিযোগকারী। একই সঙ্গে অভিযুক্ত ব্যক্তির কথাও পুলিশকে জানান তিনি। সেই ভিত্তিতেই শনিবার অভিযুক্ত ব্যক্তিকে পালাক্কড়ের এক বাসস্ট্যান্ড থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সমগ্র ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। অন্যদিকে অভিযুক্তের সঙ্গে দলের কোনও সম্পর্ক নেই বলে জানিয়েছে কেরল সিপিএম।

মতিহার বার্তা ডট কম  ২৪ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *