আন্দোলনের মধ্য দিয়েই দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে : ড. কামাল

আন্দোলনের মধ্য দিয়েই দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে : ড. কামাল

‘মতিহার বার্তা ডেস্ক : ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মধ্য দিয়েই দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে’ মন্তব্য করে ড. কামাল হোসেন বলেছেন, ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করার জন্য ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। আপনারা দেখুন আমরা সব অসম্ভবকে সম্ভব করেছি।

রোববার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আয়োজিত মহান স্বাধীনতার দিবসের এক আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এই মন্তব্য করেন।

কমাল বলেন, ‘আমরা কি এই বাংলাদেশ চেয়েছিলাম? কী ধরনের বাংলাদেশ থাকবে- এটা সংবিধানে লেখা আছে। অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের ভোটে নির্বাচিত হবেন- এ ব্যাপারে কোনো দ্বিমত থাকতে পারে?

তিনি বলেন, ‘আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই, স্বাধীনতা আমরা অর্জন করেছিলাম, স্বৈরাচার থেকে মুক্ত হয়েছিলাম- এগুলো ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের ফসল ছিল। আজও ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মধ্য দিয়েই আমাদেরকে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার লক্ষ্য অর্জন করব।’

খালেদা জিয়াসহ রাজবন্দিদের মুক্তির দাবির সঙ্গে সহমত পোষণ করে কামাল হোসেন বলেন, ‘আজকে সবাই বলেছেন যাদেরকে অন্যায়ভাবে বন্দি করে রাখা হয়েছে তাদেরকে মুক্ত করা হোক। এ ব্যাপারে কোনো দ্বিমত নেই। অর্থাৎ সেই লক্ষ্যকে আমাদের অর্জন করতে হলে আমাদের ঐক্যকে সুসংহত করতে হবে, ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করার জন্য ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আপনারা দেখুন আমরা সব অসম্ভবকে সম্ভব করেছি। স্বাধীনতাযুদ্ধ দেখেন আমরা বিজয়ী হয়েছি, স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে আমরা বিজয়ী হয়েছি এবং ২০০৮ সালে আমরা যেভাবে অগ্রসর হতে পেরেছি সবকিছু ঐক্যের ফসল।’

কামাল বলেন, ‘আজকে যে দাবিগুলো এখানে এসেছে আমি পুরোপুরি তাকে সমর্থন করি এবং মনে করি যে, সবাই ঐক্যবদ্ধ হলে এটা অবশ্যই আমরা অর্জন করতে পারব। প্রকৃত অর্থে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে পারব এবং যেটা হলে কিন্তু জনগণ দেশের মালিক হিসেবে যে ভূমিকা রাখার কথা সেটা রাখতে পারবে।’

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালামের সঞ্চালনায় সভায় অন্যদের মধ্যে জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু প্রমুখ বক্তৃতা করেন। সুত্র:জাগো নিউজ

মতিহার বার্তা ডট কম  ৩১ মার্চ ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *