শিরোনাম :
গুণগত মানের পরীক্ষায় ফেল জনসনের শিশুপণ্য: ক্ষতিকর উপকরণ পাওয়ার অভিযোগ

গুণগত মানের পরীক্ষায় ফেল জনসনের শিশুপণ্য: ক্ষতিকর উপকরণ পাওয়ার অভিযোগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পাউডারের পর শ্যাম্পু৷ বিশ্বখ্যাত প্রসাধন এবং শিশুপণ্য নির্মাতা সংস্থা জনসন এন্ড জনসনসের আরও একটি পণ্যের গুণগতমান নিয়ে উঠল প্রশ্ন৷ জানা গিয়েছে জনসনের বেবি শ্যাম্পু নমুনা পরীক্ষায় ডাহা ফেল করেছে৷ শ্যাম্পুর মধ্যে ক্ষতিকর কিছু উপকরণ পাওয়া গিয়েছে৷ যদিও এই পরীক্ষার রিপোর্ট মানতে নারাজ জনসন৷

রাজস্থান ড্রাগস কন্ট্রোল অর্গানাইজেশন কিছুদিন আগে জনসন বেবি শ্যাম্পুর দুটি ব্যাচের নমুনা পরীক্ষা করে৷ সবকটি নমুনা গুণগত যাচাইয়ের পরীক্ষায় ফেল করেছে৷ প্রতিটি নমুনায় ক্ষতিকর উপকরণ মিলেছে৷ তবে এর থেকে বেশি কিছু জানায়নি রাজস্থান ড্রাগস কন্ট্রোল অর্গানাইজেশন৷

এই নিয়ে রাজস্থানে শোরগোল পড়ে গিয়েছে৷ রাজস্থানের ওই সংস্থা জানিয়েছে, এই বেবি শ্যাম্পু গুলির এক্সপায়ার ডেট ছিল সেপ্টেম্বর ২০২১৷ হিমাচল প্রদেশে কোম্পানির প্ল্যান্টে এগুলি তৈরি করা হয়েছে৷ জনসন এমন এক বেবি প্রোডাক্ট যা চোখ বন্ধ করে অনেকে ভরসা করেন৷ এই নিয়ে মুখ খুলেছেন সংস্থার মুখপাত্র৷ রয়টার্সকে তিনি জানান, পরীক্ষার রিপোর্টে নমুনাতে ফরম্যালডিহাইডের উপস্থিতির কথা বলা হয়েছে৷ বাড়ি তৈরির উপকরণ হিসাবে যা ব্যবহার করা হয়৷ যা কারসিনোজেন নামেও পরিচিতও৷

জনসন এই পরীক্ষার রিপোর্ট মানতে অস্বীকার করেছে৷ সংস্থার প্রতিটি পণ্য নিরাপদ৷ বাজারে ছাড়ার আগে জনসনের সব পণ্যকে ‘অ্যাসুরেন্স প্রসেসের’ মধ্যে দিয়ে যেতে হয়৷ যা খুবই কড়া৷ তাঁর দাবি, জনসন ভারত সরকারকে আশ্বস্ত করে জানাচ্ছে তারা তাদের পণ্যে ফরমালডিহাইড ব্যবহার করে না৷ বা এমন কোনও উপকরণো ব্যবহার করে না যা থেকে ফরমালডিহাইড তৈরি হতে পারে৷

কয়েকমাস আগে জনসনের পাউডার নিয়েও একই প্রশ্ন ওঠে৷ জনসনের পাউডারের নমুনা পরীক্ষার পর তাতে বিষাক্ত পদার্থের উপস্থিতির প্রমাণ মেলে যা থেকে ক্যানসার পর্যন্ত হতে পারে

মতিহার বার্তা ডট কম  ০১ এপ্রিল  ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *