শিরোনাম :
সাধারণ মানুষ সমাবেশ প্রত্যাখান করেছে, রাসিক মেয়র লিটন রাজশাহী নগরীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির গণসমাবেশ শুরু কাজ হল না বিষেও! আসামির মৃত্যু নিশ্চিত করতে ভয়ঙ্কর পন্থা নিলেন জেল কর্তৃপক্ষ সঙ্গ পেতে মহিলাকে নিয়ে কলকাতার হোটেলে, প্রতিশ্রুতি মতো টাকা না দেওয়ায় ধৃত ৩ বাংলাদেশি প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে এখন লজ্জায় মুখ দেখাতে পারছেন না স্পেনের কোচ, কেন? বদলের ব্রাজিলে নজিরের মুখে দাঁড়িয়ে আলভেস, পেলেকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নামছে সেলেকাওরা বিশ্বকাপে নেমারের খেলার সম্ভাবনা নিয়ে এ বার মুখ খুললেন তাঁর বাবা রাজশাহীতে আনোয়ার হোসেন উজ্জলের নেতৃত্বে হাজার হাজার মানুষের মিছিল অনুষ্ঠিত শীত উপেক্ষা করে খোলা মাঠে রাত কাটালো বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে পথে পথে বাধা
পালিয়ে থানায় এসে নিজের বিয়ে বন্ধের আর্জি জানাল এক নাবালিকা

পালিয়ে থানায় এসে নিজের বিয়ে বন্ধের আর্জি জানাল এক নাবালিকা

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাড়ি থেকে পালিয়ে থানায় এসে নিজের বিয়ে বন্ধের আর্জি জানাল এক নাবালিকা। ঘটনাটি ঘটেছে কুলতলি থানার পূর্ব রাধাবল্লভপুর গ্রামে। পড়াশোনা শিখে সাংবাদিক হওয়ার ইচ্ছে ছিল কুলতলী থানার চুপড়িঝাড়া অঞ্চলের পূর্ব রাধাবল্লভ পুর গ্রামের বাসিন্দা বছর ১৫-র আলমামুন হালদার। বাড়ির লোক হঠাৎ বিয়ে ঠিক করে। বাড়ির লোককে অনেক বুঝিয়ে কোনও লাভ না হওয়ায় বাড়ি থেকে পালিয়ে কুলতলি থানায় গিয়ে সরসরি পুলিসি সাহায্য চায় ঐ নাবালিকা।

আলমামুন জয়নগর থানার হাসানপুর এলাকায় মামার বাড়িতে থেকে পড়াশোনা করত ওই নাবালিকা। জয়নগর শ্যামসুন্দর বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ওই ছাত্রী। কয়েকদিন আগে স্কুলের পরীক্ষা শেষ করে কুলতলিতে নিজের বাড়িতে যায় সে। সেখানে গিয়ে জানতে পারে, তাঁর বিয়ে ঠিক হয়েছে।

বিয়ের কথা শুনে আলমামুন তার বাবা আলিমুদ্দিন হালদার কে অনুরোধ করলেও কোনও ফল না হওয়ায় টিউশন পড়তে যাওয়ার নাম করে কুলতলী থানায় আসে এবং পুলিসকে পুরো ঘটনা জানায়। কুলতলি থানার পুলিশ ঐ নাবালিকাকে চাইল্ড লাইনের হাতে তুলে দেয় আপাতত তাঁদের হেপাজতেই থাকবে আলমামুন। নাবালিকার অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিস। সুত্র: জি ২৪ ঘন্টা

মতিহার বার্তা ডট কম ১৩ এপ্রিল ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *