শিরোনাম :
সাধারণ মানুষ সমাবেশ প্রত্যাখান করেছে, রাসিক মেয়র লিটন রাজশাহী নগরীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির গণসমাবেশ শুরু কাজ হল না বিষেও! আসামির মৃত্যু নিশ্চিত করতে ভয়ঙ্কর পন্থা নিলেন জেল কর্তৃপক্ষ সঙ্গ পেতে মহিলাকে নিয়ে কলকাতার হোটেলে, প্রতিশ্রুতি মতো টাকা না দেওয়ায় ধৃত ৩ বাংলাদেশি প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে এখন লজ্জায় মুখ দেখাতে পারছেন না স্পেনের কোচ, কেন? বদলের ব্রাজিলে নজিরের মুখে দাঁড়িয়ে আলভেস, পেলেকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নামছে সেলেকাওরা বিশ্বকাপে নেমারের খেলার সম্ভাবনা নিয়ে এ বার মুখ খুললেন তাঁর বাবা রাজশাহীতে আনোয়ার হোসেন উজ্জলের নেতৃত্বে হাজার হাজার মানুষের মিছিল অনুষ্ঠিত শীত উপেক্ষা করে খোলা মাঠে রাত কাটালো বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে পথে পথে বাধা
মেলার আড়ালে চলছে অশ্লীল নাচ ও জুয়ার অসর

মেলার আড়ালে চলছে অশ্লীল নাচ ও জুয়ার অসর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পূর্ব মেদিনীপুর জেলার এগরা, পটশপুর, চন্ডিপুরের বিভিন্ন প্রান্তে আজও মেলার আড়ালে রমরমিয়ে চলছে অশ্লীল নাচ ও জুয়ার আসর। আর সেই ছবি আরও একবার ধরা পড়ল সাংবাদিকের এর ক্যামেরায়। কিন্তু দিনের পর দিন এই দৃশ্য রমরমিয়ে চললেও পুলিশ কোন ব্যবস্থা গ্রহন করে না বলে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ স্থানীয়দের।

যে কোন উৎসব উপলক্ষ্যকে সামনে রেখে চার থেকে পাঁচদিনের মেলা বসে যায় এই সমস্ত গ্রাম্য এলাকাগুলিতে৷ রাত যতই বাড়তে থাকে অশ্লীল নাচ আর জুয়ার আসর ততই জমে উঠে। মদের ঠেক ও জুয়ার আসরে রমরময়ে চলছে মেলা। তার সঙ্গে তো উপরি রয়েছে অশ্লীল নৃত্য। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার এগরার পানিপারুলে এমনই দৃশ্য ধরা পড়ল সংবাদ কর্মীদের ক্যামেরায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পানিপারুলের সাইফুন স্টেডিয়ামে শেরাওয়ালি পুজো ও মিলন উৎসব উপলক্ষে বসেছে মেলা। অভিযোগ, অশ্লীল নৃত্য-সহ জুয়ার আসর ও মদের ভাটি চলছে এই মেলা। বেশ কয়েকদিন ধরে এই ভাবেই চলছে মেলা। স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, প্রত্যেকদিনই সন্ধ্যা হলেই সাইফুন স্টেডিয়ামে শুরু হয়ে যায় হাঙ্গামা। গ্রামের যুবকেরা সেখানেই ভীড় জমায়। আবার অনেকে জুয়া খেলে সর্বশান্ত হয়ে যাচ্ছে।

এর ফলে অধিকাংশ বাড়িতে পারিবারিক অশান্তি লেগে রয়েছে নিত্যদিন। গ্রামের সুস্থ পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে বলে অভিযোগ স্থানীয় মানুষদের। স্থানীয় প্রশাসন ও পুলিশকে জানিয়েও কোন লাভ হয়নি বলে অভিযোগ স্থানীয় মানুষের। এ বিষয়ে

তবে এই ছবি ধরা পড়তেই সাংবাদিকরা স্থানীয় এগরা থানার সঙ্গে যোগাযোগ করে। যদিও তাঁদের নাকি এই বিষয়ে কিছুই জানা নেই বলে দাবি। কার্যত আমাদের প্রতিনিধির কাছে এমন খবর শুনে কার্যত চমকেই উঠলেন থানায় সেই সময় কর্মরত পুলিশের ওসি। যদিও পুরো ঘটনার খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন ওসি।

মতিহার বার্তা ডট কম  ১৫-এপ্রিল  ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *