শিরোনাম :
প্রেমিকার বাড়ির সামনে বিষপানে প্রেমিকের মৃত্যু; বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য ‘শাড়ি ক্যানসার’ কেন হয়? তার উপসর্গই বা কী? জানালেন চিকিৎসক ডায়াবেটিকেরাও ভাত খেতে পারেন, তবে মানতে হবে কিছু নিয়ম মল্লিকার সঙ্গে চুমু বিতর্ক, মুখ দেখাদেখি বন্ধ কুড়ি বছর, সাক্ষাৎ পেয়ে কী করলেন ইমরান? ক্যাটরিনার জন্যই সলমনের সঙ্গে সম্পর্কে দূরত্ব, ইদে স্বামীকে নিয়ে ভাইজানের বাড়িতে আলিয়া! রাজশাহী মহানগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ২৬ ১৬ মাসের মেয়েকে বাড়িতে একা রেখে ছুটি কাটাতে যান মা, না খেয়ে, জল না পেয়ে মৃত্যু! সাজা যাবজ্জীবন রাজশাহীতে ট্রাকে টোল আদায়ের নামে চাঁদাবাজি, আটক ২ পুঠিয়ায় পুলিশের উপর হামলার অভিযোগে গ্রেফতার ৩ ঈদের সাথে যুক্ত হওয়া নববর্ষের উচ্ছ্বাসে বিনোদন স্পট পরিপূর্ণ
রাজশাহীতে আইনজীবীর বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

রাজশাহীতে আইনজীবীর বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী নগরীতে অবৈধভাবে জমি নিজের দখলে রাখতে এক আইনজীবী অপপ্রচার চালাচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে বুধবার দুপুরে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করা হয়। নগরীর শিরোইল এলাকায় নিজের বাড়িতেই সংবাদ সম্মেলন করেন ভুক্তভোগী আমিনুল ইসলাম ও তার স্ত্রী বিলকিস রহমান।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার ওই জমি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন আইনজীবী মাইনুল আহসান পান্না। জেলা জর্জ আদালতের এই আইনজীবী আমিনুল দম্পতির নিকটাত্বীয়।

কিন্তু এই দম্পতির অভিযোগ, তাদের অংশের জমি দখলে নিতে আইনজীবী পান্না নানা কুটকৌশল অবলম্বন করছেন। চালাচ্ছেন নানা অপপ্রচার। তবে আইনজীবী পান্না এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

বুধবার পাল্টা সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ১৯৫৯ সালে মৃত ফজলে রাব্বি মিয়া ও তার বোন জোবাইদা খাতুন শিরোইল এলাকায় ২ দশমিক ২৬৯৭ একর জায়গা ক্রয় করেন। জমিটি তাদের দুজনের নামেই অর্ধেক করে রাখা হয়।

তবে কে কোন অংশের ভাগ পাবেন তখনকার দলিলে এটি উল্লেখ ছিল না। পরবর্তীতে পারিবারিকভাবে নির্ধারণ করা হয় জমির কোন অংশ কে পাবেন। ফজলে রাব্বি নেন জমির পূর্বের অংশ। আর জোবাইদা খাতুন পান পশ্চিমের অংশ। জোবাইদা মৃত্যুর আগে নিজের জমি পাঁচ মেয়েকে হেবানামা রেজিস্ট্রি করে দিয়ে যান।

অন্যদিকে ফজলে রাব্বির মৃত্যুর পরও তার সন্তানেরা জমির অংশ ভোগদখল করছেন। কিন্তু এখন মৃত ফজলে রাব্বির আইনজীবী ছেলে পান্না নিজেদের অংশের জমি ছেড়ে তার ফুফুদের জমির কিছু অংশ নিজের আয়ত্বে রাখতে নানা অপপ্রচার চালাচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন বিলকিস রহমান।
বিলকিস রহমান বলেন, তারা নিজেদের জমিতে প্রাচীর দিচ্ছেন। কিন্তু আইনজীবী পান্না এতে বাধা দিচ্ছেন। তারা বাড়ির নিরাপত্তার জন্য জমির পশ্চিমাংশে পুকুরের পাড়ে একটি দরজা দিয়েছেন।

কিন্তু আইনজীবী পান্না জমির পূর্বাংশ ছেড়ে এখন পশ্চিমে এসে দাবি করছেন, এটি পুকুর পাড় নয়, চলাচলের রাস্তা। অথচ খতিয়ানে এই জায়গাটুকু পুকুর পাড় হিসেবেই উল্লেখ রয়েছে।

তবে পুকুর পাড়ে দরজা এবং জমির সীমানা প্রাচীর নির্মাণ নিয়ে আইনজীবী পান্না মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলন করে মিথ্যাচার করেছেন বলে অভিযোগ বিলকিস রহমানের। এখন তিনি মুঠোফোনে হুমকি-ধামকিও দিচ্ছেন বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করেন বিলকিস রহমান।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেন আইনজীবী পান্না। তিনি বলেন, কোনো হুমকি-ধামকি দিচ্ছি না। অপপ্রচারও চালাচ্ছি না। পুকুর পাড়ের যেখানে দরজা দেয়া হয়েছে সেটি আসলে চলাচলের রাস্তা।

এটি কেউ বন্ধ করতে পারবে না। খতিয়ানে পুকুরপাড় এবং জমির পূর্বের অংশ ছেড়ে পশ্চিমে আসার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পারিবারিকভাবে একটা ‘না-দাবি’ কাগজ করে জমির বণ্টন করা হয়েছিল। আইনগতভাবে এর কোনো ভিত্তি নেই বলে দাবি করেন তিনি। সুত্র: সিল্কসিটি

মতিহার বার্তা ডট কম ২৪ এপ্রিল ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply