শিরোনাম :
প্রেমিকার বাড়ির সামনে বিষপানে প্রেমিকের মৃত্যু; বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য ‘শাড়ি ক্যানসার’ কেন হয়? তার উপসর্গই বা কী? জানালেন চিকিৎসক ডায়াবেটিকেরাও ভাত খেতে পারেন, তবে মানতে হবে কিছু নিয়ম মল্লিকার সঙ্গে চুমু বিতর্ক, মুখ দেখাদেখি বন্ধ কুড়ি বছর, সাক্ষাৎ পেয়ে কী করলেন ইমরান? ক্যাটরিনার জন্যই সলমনের সঙ্গে সম্পর্কে দূরত্ব, ইদে স্বামীকে নিয়ে ভাইজানের বাড়িতে আলিয়া! রাজশাহী মহানগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ২৬ ১৬ মাসের মেয়েকে বাড়িতে একা রেখে ছুটি কাটাতে যান মা, না খেয়ে, জল না পেয়ে মৃত্যু! সাজা যাবজ্জীবন রাজশাহীতে ট্রাকে টোল আদায়ের নামে চাঁদাবাজি, আটক ২ পুঠিয়ায় পুলিশের উপর হামলার অভিযোগে গ্রেফতার ৩ ঈদের সাথে যুক্ত হওয়া নববর্ষের উচ্ছ্বাসে বিনোদন স্পট পরিপূর্ণ
রেলসেবা অ্যাপে মিলবে রেলের ৫০ শতাংশ টিকিট

রেলসেবা অ্যাপে মিলবে রেলের ৫০ শতাংশ টিকিট

মতিহার বার্তা ডেস্ক : রেলওয়ে খাতকে আধুনিক ও যুগোপযোগী যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার বদ্ধপরিকর। রূপকল্প ২০২১ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বর্তমান সরকার রেলওয়ের সামগ্রিক উন্নয়নের জন্য ২০১১ সালের ৪ ডিসেম্বর পৃথক রেলপথ মন্ত্রণালয় গঠন করে। বর্তমান সরকারের সময়ে নেয়া উন্নয়ন প্রকল্পগুলো দ্রুত বাস্তবায়ন হচ্ছে। পদ্মা সেতুতে রেল সংযোগ প্রকল্প, ঢাকা-চট্টগ্রাম হাইস্পিড ট্রেন নির্মাণ প্রকল্পের মতো বড় বড় প্রকল্পের কাজ চলছে। সবকয়টি প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে রেলওয়েতে আমূল পরিবর্তন আসবে।

এর অংশ হিসেবে রেলে স্বাচ্ছন্দ্যে যাতায়াত আরো সহজতর করতে ‘রেলসেবা’ অ্যাপ চালু করেছে সরকার। এই অ্যাপের মাধ্যমে যে কেউ যেকোনো স্থানে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কিনতে পারবে। টিকিটের মূল্য রেলওয়ে স্টেশনে যেয়ে পরিশোধ করতে হবে না, মোবাইলের দিয়ে ব্যাংকের একাউন্টের মাধ্যমে এই টিকিটের মূল্য পরিশোধ করা যাবে।

অ্যাপটি উদ্বোধন করে রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, আমি টিকিট কেটে এই অ্যাপটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করলাম। এখন থেকে রেলের ৫০ শতাংশ টিকিট এই অ্যাপের মাধ্যমেই কাটতে পারবেন। অ্যাপে জাতীয় কল সেন্টারের (৩৩৩) সঙ্গে বাংলাদেশ রেলওয়ের তথ্যসমূহ ইন্টিগ্রেইড করা হয়েছে। ফলে জাতীয় কল সেন্টার ৩৩৩ থেকে বাংলাদেশ রেলওয়ে সম্পর্কিত যেকোনো তথ্য পাওয়া যাবে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বর্তমানে পাঁচশ ব্যক্তি একই সময়ে এই অ্যাপ থেকে টিকিট কাটতে পারবেন। ঘণ্টায় ১৫ হাজার টিকিট বিক্রি করার সক্ষমতা রয়েছে এই অ্যাপের। ভবিষ্যতে অ্যাপ থেকে টিকিট বিক্রির সক্ষমতা আরও বাড়ানো হবে।

অ্যাপটিতে সব আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট ক্রয় করা যাবে, নির্দিষ্ট গন্তব্যের ভাড়া জানা যাবে, টিকিট প্রাপ্যতা সম্পর্কে জানা যাবে, ট্রেন রুট, সময়সূচী, ট্রেনভিত্তিক বিরতি স্টেশনসমূহের নাম ও সময়সূচী, জার্নি হিস্ট্রি, কোচ ভিউ, সিট চয়েজ করা যাবে।

এ ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনের নম্বর, খাবারের মেন্যু ও মূল্য তালিকাও জানা যাবে। পরবর্তীতে এ অ্যাপটি থেকে যেকোনো যাত্রী সহজেই তার নিজের অথবা পরিবারের জন্য খাবার কিনতে পারবেন। জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে ‘রেলসেবা’ অ্যাপে নিবন্ধন করা যাবে। একই আইডি থেকে একবারে চারটি আসনের জন্য টিকিট সংগ্রহ করা যাবে। আর দিনে দুই বার চারটি করে আটটি পর্যন্ত আসনের টিকিট কাটতে পারবেন যে কেউ।

প্রসঙ্গত, অ্যাপটি প্রাথমিক অবস্থায় শুধুমাত্র অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনে ব্যবহার করা যাবে। আয়োজকরা জানিয়েছেন, আইওএসভিত্তিক মোবাইল ফোনে অ্যাপটি ব্যবহার করতে কিছুটা সময় লাগবে। আইফোন গ্রাহকদের এই অ্যাপটি পেতে উদ্বোধনের ৭২ ঘণ্টা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

গুগল প্লে স্টোর থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে https://play.google.com/store/apps/details?id=com.cnsbd.railsheba এই ঠিকানা থেকে।

মতিহার বার্তা ডট কম –  এপ্রিল, ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply