শিরোনাম :
আরএমপি পুলিশের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত চারঘাটে গাঁজা- সহ ২জন মাদক কারবারীকে গ্রেফতার রাজশাহী মহানগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ১৯ রাজশাহী বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষায় বসছে এক লাখ ৩৮ হাজার ১৫৭ শিক্ষার্থী রাজশাহীতে জমেছে পশুহাট, লাখের নিচে মিলছে না কোরবানিযোগ্য গরু দ্রুত সময়ে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ বিষয়ে রাসিকের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত রোদে পোড়া কালচে ত্বক নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন? ঘরোয়া টোটকা দিচ্ছেন প্রিয়ঙ্কা চোপড়া তেল বেশি গরম করলে কি খাদ্যগুণ চলে যায়? কী বলছেন পুষ্টিবিদ‌রা? বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচের আগে ধাক্কা পাকিস্তানে, চোটে বাদ অবসর ভেঙে ফেরা ক্রিকেটার সিঙ্গাপুর, হংকংয়ের পর এ বার ভারতের মশলা নিষিদ্ধ করল পড়শি ‘বন্ধু’ দেশ
পপকর্ন বিক্রেতা তৈরি করলেন প্লেন

পপকর্ন বিক্রেতা তৈরি করলেন প্লেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রুপোলি পর্দার গল্প যে কেউ অনায়াসে বলতে পারেন মোহম্মদ ফইয়াজের কীর্তিকে৷ অথবা তার কাজ নিয়েই হয়ে যেতে পারে আস্ত এক ছবি৷ ৩২ বছরের পাকিস্তানি পপকর্ন বিক্রেতাই নজর কাড়লেন পাকিস্তান এয়ারফোর্সের৷ কীভাবে? তৈরি করে ফেললেন আস্ত এক প্লেন যা চলে রোড কাটার ইঞ্জিনে এবং এই প্লেনের রয়েছে বার্ল্যাপ উইংস-ও৷

ফইয়াজের এই কীর্তি প্রকাশ্যে আসার পরই রাতারাতি তিনি জায়গা করে নিয়েছেন লক্ষ লক্ষ মানুষের হৃদয়ে৷ কিন্তু কীভাবে এই পপকর্ন বিক্রেতা তৈরি করলেন এই প্লেন?

সূত্রের খবর, ফইয়াজ টিভি ক্লিপস্ এবং অনলাইন ব্লু-প্রিন্টে ভরসা করেই এমন একটি কাজ করতে পেরেছেন৷ ফইয়াজ এক সংবাদ সংস্থাকে জানান, আমি বাতাসে ভাসছি, এছাড়া আর কিছুই অনুভ করতে পারছি না৷ ফইয়াজের এই কাজই আকর্ষণ করেছে পাকিস্তান এয়ারফোর্সকেও৷ তাদের আধিকারিক ইতিমধ্যেই একাধিকবার দেখা করে গিয়েছে ফইয়াজের সঙ্গে৷ পাকিস্তানের বিভিন্ন স্থান থেকে আরও অনেকেই মধ্য পঞ্জাবের তাবুর গ্রামে ফইয়াজের বাড়িতে ছুটে আসছেন একবার এই প্লেন চাক্ষুষ করতে৷

জানা যায়, ছোট থেকেই ফইয়াজের স্বপ্ন ছিল পাকিস্তান এয়ারফোর্সে যুক্ত হওয়ার৷ কিন্তু বাবার মৃত্যুর পর তাকে বাধ্য হয়েই স্কুল ছাড়তে হয় এবং কম টাকা পেলেও শুরু করতে হয় সংসার টানার কাজ৷ কারণ বাড়িতে রয়েছেন তাঁর মা এবং পাঁচ ভাই-বোন৷ বর্তমানে দিনের বেলায় ফইয়াজ পপকর্ন বিক্রি করেন এবং রাতে সিকিওরিটি গার্ডের কাজ করেন৷

সে প্রথম ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক-এ এয়ার ক্র্যাশ ইনভেস্টিগেসন দেখেই এই প্লেন তৈরির স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিল৷ পরে তিনি সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে বাড়ির জমির একটি অংশ বিক্রি করে ৫০,০০০ টাকায় শুরু করেন তাঁর কাজ৷ একবছরের কঠিন পরিশ্রমের পর চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতেই তার এই প্লেন তৈরি হয়ে যায়৷ প্রত্যক্ষদর্শী আমীর হুসেন জানান, এটি ওড়ার আগে ১২০kph যেতে পারে৷ মাটি থেকে ২ থেকে আড়াই ফুট ওপরে উঠতে পারে প্লেনটি৷ অবতরণের আগে ২ থেকে তিন কিলোমিটার পর্যন্ত উড়তে ফইয়াজের সৃষ্টি৷

মতিহার বার্তা ডট কম  ০৭   মে ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply