শিরোনাম :
প্রেমিকার বাড়ির সামনে বিষপানে প্রেমিকের মৃত্যু; বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য ‘শাড়ি ক্যানসার’ কেন হয়? তার উপসর্গই বা কী? জানালেন চিকিৎসক ডায়াবেটিকেরাও ভাত খেতে পারেন, তবে মানতে হবে কিছু নিয়ম মল্লিকার সঙ্গে চুমু বিতর্ক, মুখ দেখাদেখি বন্ধ কুড়ি বছর, সাক্ষাৎ পেয়ে কী করলেন ইমরান? ক্যাটরিনার জন্যই সলমনের সঙ্গে সম্পর্কে দূরত্ব, ইদে স্বামীকে নিয়ে ভাইজানের বাড়িতে আলিয়া! রাজশাহী মহানগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ২৬ ১৬ মাসের মেয়েকে বাড়িতে একা রেখে ছুটি কাটাতে যান মা, না খেয়ে, জল না পেয়ে মৃত্যু! সাজা যাবজ্জীবন রাজশাহীতে ট্রাকে টোল আদায়ের নামে চাঁদাবাজি, আটক ২ পুঠিয়ায় পুলিশের উপর হামলার অভিযোগে গ্রেফতার ৩ ঈদের সাথে যুক্ত হওয়া নববর্ষের উচ্ছ্বাসে বিনোদন স্পট পরিপূর্ণ
দাম কমানোর পর বাজারে আসেনি সয়াবিন তেল

দাম কমানোর পর বাজারে আসেনি সয়াবিন তেল

দাম কমানোর পর বাজারে আসেনি সয়াবিন তেল
দাম কমানোর পর বাজারে আসেনি সয়াবিন তেল

অনলাইন ডেস্ক: রোজার আগে বাজারে পণ্যের দাম সহনীয় রাখতে সয়াবিন তেলের শুল্ক-কর কমিয়েছে সরকার। এতে প্রতি লিটার সয়াবিন তেলের দাম ১০ টাকা কমিয়ে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। গত ১ মার্চ থেকে কার্যকর হওয়ার কথা থাকলেও এখনো বাজারে নতুন দরের তেল আসেনি। তবে বোতলজাত সয়াবিন তেল গায়ে লেখা দরের চেয়ে কিছুটা কম রাখতে দেখা গেছে।

সরবরাহকারী কম্পানিগুলো বলছে, তারা বাজারে নতুন দরের সয়াবিন তেল ছেড়েছে। দু-এক দিনের মধ্যে ক্রেতারা বাজারে পাবে। অন্যদিকে বাজারে আসা ক্রেতারা বলছে, তেলের দাম বাড়ানোর ঘোষণা হলেই দাম বাড়িয়ে বিক্রি শুরু করে দেন ব্যবসায়ীরা। কিন্তু দাম কমিয়ে কার্যকরের তারিখ ঘোষণা দেওয়ারও সপ্তাহ চলে গেলেও বাজারে নতুন দরের তেল পাওয়া যায় না।

গত ২০ ফেব্রুয়ারি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত দ্রব্যমূল্য ও বাজার পরিস্থিতি পর্যালোচনাবিষয়ক টাস্কফোর্সের সভায় সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ১০ টাকা কমানোর সিদ্ধান্ত হয়। সে অনুযায়ী এখন প্রতি লিটার নতুন বোতলজাত সয়াবিন তেল ১৬৩ টাকা ও খোলা সয়াবিন তেল ১৪৯ টাকায় বিক্রি হওয়ার কথা।

গতকাল রবিবার রাজধানীর রামপুরা, বাড্ডা ও মহাখালী কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা গেছে, খুচরা বিক্রেতারা আগের বাড়তি দরেই তেল বিক্রি করছেন। ক্রেতারা নতুন দরের তেল খোঁজাখুঁজি করেও পাচ্ছে না।

এক লিটারের বোতলজাত সয়াবিন তেল ১৭৩ টাকা, দুই লিটার সয়াবিন তেল বসুন্ধরা ছাড়া সবাই ৩৪৬ টাকায় বিক্রি করছেন। কিন্তু বসুন্ধরা সয়াবিন তেল ১৩ টাকা কমে ৩৩৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পাঁচ লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল ৮৪৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বাজারে খোলা সয়াবিন তেল লিটার ১৫২ থেকে ১৫৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বাড্ডার হাবিব স্টোরের ব্যবসায়ী হাবিবুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘এখনো আগের দামের পর্যাপ্ত তেল বাজারে রয়েছে, তাই হয়তো কম্পানিগুলো নতুন দরের তেল বাজারে ছাড়তে দেরি করছে।

ভোজ্য তেল বিপণনকারী কম্পানি টিকে গ্রুপের পরিচালক শফিউল আতহার বলেন, ‘নতুন দামের সয়াবিন তেল বাজারে ১ মার্চ থেকে ছাড়া হয়েছে। তবে শুক্র ও শনিবার ব্যাংক বন্ধ থাকার কারণে নতুন দামের পণ্য সরবরাহ কিছুটা ব্যাহত হয়েছে। দু-এক দিনের মধ্যে বাজারে পৌঁছে যাবে।’

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম গত শনিবার রাজধানীতে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের বলেন, ‘খুচরা বাজারে প্রভাব পড়তে দু-এক দিন সময় লাগতে পারে।’

সরিষা, সানফ্লাওয়ার ও রাইস ব্র্যান অয়েল

বাজারে সয়াবিন তেলের পরিবর্তে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন-ই সমৃদ্ধ সানফ্লাওয়ার অয়েলের চাহিদা রয়েছে। ব্র্যান্ডের এক লিটার বোতলজাত সানফ্লাওয়ার অয়েল ৪০০ টাকার বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে। সরিষা ও রাইস ব্র্যান অয়েলেরও বিক্রি বেড়েছে। সানফ্লাওয়ার ও রাইস ব্র্যান অয়েল বাজারের অন্যান্য তেলের তুলনায় অনেকটাই স্বাস্থ্যকর হওয়ায় এই তেলের চাহিদা বাড়ছে বলে বিক্রেতারা জানান।

অলিটালিয়া ব্র্যান্ডের সানফ্লাওয়ার অয়েল এক লিটার ৪২৫ টাকা, দুই লিটার ৮৫০ টাকা এবং তিন লিটার এক হাজার ২৬০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে। ইসি অর্গানিক সানফ্লাওয়ার পাঁচ লিটারের বোতল বিক্রি হচ্ছে দুই হাজার ১১১ টাকায়। ফাইন ডাইন সানফ্লাওয়ার অয়েল পাঁচ লিটারের দাম দুই হাজার ২৫০ টাকা, গোল্ডেন ড্রপ সানফ্লাওয়ার অয়েল পাঁচ লিটার দুই হাজার ২৫০ টাকা, ভিটা কেয়ার সানফ্লাওয়ার পাঁচ লিটারের দাম দুই হাজার ৫০ টাকা এবং সান বিয়াম সানফ্লাওয়ার পাঁচ লিটার তেলের দাম দুই হাজার ১৯০ টাকা। বিভিন্ন ব্র্যান্ডের রাইস ব্র্যান অয়েল দুই লিটার তেল ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এ ছাড়া বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বোতলজাত সরিষার তেল প্রতি লিটার ৩৪০ থেকে ৩৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply