শিরোনাম :
আরএমপি পুলিশের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত চারঘাটে গাঁজা- সহ ২জন মাদক কারবারীকে গ্রেফতার রাজশাহী মহানগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ১৯ রাজশাহী বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষায় বসছে এক লাখ ৩৮ হাজার ১৫৭ শিক্ষার্থী রাজশাহীতে জমেছে পশুহাট, লাখের নিচে মিলছে না কোরবানিযোগ্য গরু দ্রুত সময়ে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ বিষয়ে রাসিকের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত রোদে পোড়া কালচে ত্বক নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন? ঘরোয়া টোটকা দিচ্ছেন প্রিয়ঙ্কা চোপড়া তেল বেশি গরম করলে কি খাদ্যগুণ চলে যায়? কী বলছেন পুষ্টিবিদ‌রা? বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচের আগে ধাক্কা পাকিস্তানে, চোটে বাদ অবসর ভেঙে ফেরা ক্রিকেটার সিঙ্গাপুর, হংকংয়ের পর এ বার ভারতের মশলা নিষিদ্ধ করল পড়শি ‘বন্ধু’ দেশ
রাজশাহীতে এবার ঈদে দেড় লাখ পরিবার পাচ্ছে ভিজিএফ চাল

রাজশাহীতে এবার ঈদে দেড় লাখ পরিবার পাচ্ছে ভিজিএফ চাল

নিজস্ব প্রতিবেদক : এবার ঈদে রাজশাহী জেলার দেড় লাখেরও বেশি পরিবার সরকারের দেয়া দুস্থদের খাদ্য সহায়তা (ভিজিএফ) কর্মসূচির চাল পাবে। ঈদের আগেই জেলার প্রত্যেক উপজেলার পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ থেকে এই চাল বিতরণ করা হবে। তালিকাভুক্ত প্রত্যেক পরিবার পাবে ১৫ কেজি করে চাল।

জেলা ত্রাণ ও পূনর্বাসন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, জেলার ১৪টি পৌরসভার জন্য মোট ৭৩৯ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ হয়েছে। আর জেলার ৯ উপজেলার ৭২টি ইউনিয়ন পরিষদের জন্য বরাদ্দ এসেছে ১ হাজার ৫৭৪ মেট্রিক টন চাল। পুরো জেলায় এবার মোট উপকারভোগীর সংখ্যা ১ লাখ ৫৪ হাজার ২৫০ জন।

সূত্র মতে, জেলার গোদাগাড়ী, তাহেরপুর, নওহাটা, কাঁকনহাট ও বাঘা পৌরসভার প্রত্যেকটিতে পরিবারের সংখ্যা ৪ হাজার ৬২১টি। এসব পৌরসভার প্রত্যেকটিতে বরাদ্দকৃত চালের পরিমাণ ৬৯ দশমিক ৩১৫ মেট্রিক টন। এছাড়া মুন্ডুমালা, কেশরহাট, চারঘাট, আড়ানী, ভবানীগঞ্জ, পুঠিয়া, দুর্গাপুর ও কাটাখালী পৌরসভার প্রত্যেকটিতে পরিবারের সংখ্যা ৩ হাজার ৮১টি। এসব পৌরসভায় বরাদ্দকৃত চালের পরিমাণ ৪৬ দশমিক ২১৫ মেট্রিক টন করে। আর তানোর পৌরসভায় কার্ডধারী পরিবারের সংখ্যা ১ হাজার ৫৪০টি। এ পৌরসভায় চাল বরাদ্দ করা হয়েছে ২৩ দমমিক ১০০ মেট্রিক টন।

এবার ইউনিয়ন পর্যায়ে উপকারভোগীর সংখ্যা ১ লাখ ৪ হাজার ৯৫৭ টি। এর মধ্যে গোদাগাড়ী উপজেলার ৯ টি ইউনিয়নের জন্য চাল বরাদ্দ করা হয়েছে ২৮৩ দশমিক ২১৫ মেট্রিক টন। এ উপজেলায় ভিজিএফ চাল পাবে ১৮ হাজার ৮৮১টি পরিবার। তানোর উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের জন্য চাল বরাদ্দ করা হয়েছে ১৫৯ দশমিক ৮৪০ মেট্রিক টন। এ উপজেলায় কার্ডের সংখ্যা ১০ হাজার ৬৫৬টি।

বাগমারা উপজেলার ৯ টি ইউনিয়নের জন্য চাল বরাদ্দ করা হয়েছে ২৬৩ দশমিক ৮৫ মেট্রিক টন। এ উপজেলায় কার্ডের সংখ্যা ১৭ হাজার ৬৩৯টি। বাঘা উপজেলার জন্য চাল বরাদ্দ করা হয়েছে ১৩২ মেট্রিক টন। এ উপজেলায় কার্ডের সংখ্যা ৮ হাজার ৮০০টি। পুঠিয়া উপজেলার জন্য চাল বরাদ্দ করা হয়েছে ১৪৫ দশমিক ৪২৫ মেট্রিক টন। এ উপজেলায় কার্ডের সংখ্যা ৯ হাজার ৬৯৫টি।
মোহনপুর উপজেলার ৯ টি ইউনিয়নের জন্য চাল বরাদ্দ করা হয়েছে ১১৬ দমমিক ৭৪৫ মেট্রিক টন। এ উপজেলায় কার্ডের সংখ্যা ৭ হাজার ৭৮৩টি। চারঘাট উপজেলার ৯ টি ইউনিয়নের জন্য চাল বরাদ্দ করা হয়েছে ২১৫ দশমিক ২০৫ মেট্রিক টন। এ উপজেলার ১৪ হাজার ৩৪৭টি পরিবারকে চাল দেয়া হবে। দুর্গাপুর উপজেলার জন্য চাল বরাদ্দ করা হয়েছে ১৪৬ দশমিক ২২০ মেট্রিক টন। এ উপজেলায় কার্ডের সংখ্যা ৯ হাজার ৭৪৮টি। পবা উপজেলার জন্য চাল বরাদ্দ করা হয়েছে ১১২ দশমিক ৬২০ মেট্রিক টন। এখানে মোট ৭ হাজার ৫০৮টি পরিবার চাল পাবে।

জেলা ত্রাণ ও পূনর্বাসন কর্মকর্তা আমিনুল হক সাংবাদিকদের জানান, কয়েকদিনের মধ্যেই পৌরসভা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে চাল পৌঁছবে। এরপর পৌরসভার মেয়র ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা চাল বিতরণ করবেন।

মতিহার বার্তা ডট কম  ২৪ মে ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply