শিরোনাম :
গোদাগাড়ীতে ১০লাখ টাকার হেরোইন-সহ ৩জন মাদক কারবারী গ্রেফতার নগরীর তালাইমারীতে গাঁজা কারকারী মল্লিক গ্রেফতার রাজশাহীতে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু রিভার সিটি নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রুয়েটকে স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রুপান্তর করতে হলে সকল ক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা জরুরী চিপস্ খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ৬ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ চেষ্টা: আসামি নাইম গ্রেফতার এইচএসসি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে আরএমপি’র নোটিশ জারি তানোরে ক্লুলেস হত্যা মামলার পলাতক আসামি ইকবাল গ্রেফতার কৃষিতে বির্পযয়ের আশঙ্কা তানোরে চোরাপথে আশা মানহীন সারে বাজার সয়লাব বাঘায় বাবুল হত্যা মামলায় চেয়ারম্যানসহ ৭ জনকে রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ সিংড়ায় ক্যান্সারে আক্রান্ত ২২ ব্যক্তির মাঝে চেক বিতরণ
রাজশাহী মহানগরীতে ২ ভূয়া ডাক্তার আটক

রাজশাহী মহানগরীতে ২ ভূয়া ডাক্তার আটক

রাজশাহী মহানগরীতে ২ ভূয়া ডাক্তার আটক
রাজশাহী মহানগরীতে ২ ভূয়া ডাক্তার আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী মহানগরীতে ডাক্তার পরিচয় দিয়ে রক্ত পরীক্ষার নামে রোগীর আত্মীকে মারপিট করা ও আটক রেখে জোরপূর্বক টাকা আদায়ের অভিযোগে দুই ভূয়া ডাক্তারকে আটক করেছে আরএমপি’র রাজপাড়া থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুর পোনে ১টায় রাজপাড়া থানাধীন লক্ষীপুর মোড় এলাকা হতে তাদের আটক করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো: রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার কেশবপুরের মোঃ নজরুল ইসলামের ছেলে মোঃ সালমান শরিফ বাবু (৩৫) ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার গোমস্তাপুর থানার মকরমপুরের মোঃ মইদুল ইসলামের ছেলে মোঃ জাহিদুল ইসলাম জাহিদ (৩৭)। সে নগরীর রাজপাড়া থানার লক্ষীপুর কাঁচাবাজার এলাকার বাসিন্দা।

ঘটনা সূত্রে জানা যায়, নওগাঁ জেলার আত্রাই থানার মাধবপুর গ্রামের মোঃ সিরাজুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৬ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন। গতকাল সোমবার (১৭ জানুয়ারি)রাত ১০টায় আসামী মোঃ সালমান শরিফ নিজেকে ডাক্তার পরিচয় দিয়ে সেই ওয়ার্ডে ভর্তি সিরাজুল ইসলামের শরীর হতে রক্ত নেয়। একই সাথে আরো কয়েকজন রোগীর শরীর হতে রক্ত নেয়। হাসপাতালের ডাক্তার মনে করে তারা রক্ত দেয়। রক্ত সংগ্রহের পর আসামী সালমান শরিফ রোগীর ছেলে সুমনকে ১ ঘন্টা পরে রাজশাহী ডায়াগনস্টিক সেন্টার হতে পরীক্ষার রিপোট সংগ্রহ করার জন্য বলে। সুমন আলী রাত ১১ টায় রাজশাহী ডায়াগনস্টিক সেণ্টারে তার বাবার পরীক্ষার রিপোর্ট চাইতে গেলে আসামীরা রিপোর্ট বাবদ ৪ হাজার টাকা দাবি করে। সুমন জানায়, সরকারী ডাক্তার ভেবে তারা পরীক্ষা করার জন্য রক্ত দিয়েছে। এতো টাকা দেওয়ার তাদের সামর্থ্য নেই। তাই সে তার বাবার কাগজ ফেরত চাইলে আসামী মোঃ সালমান ও মোঃ জাহিদুল ইসলাম জাহিদসহ অজ্ঞাতনামা আরো ২ জন তাকে রাজশাহী ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আটক রেখে মারপিট করে এবং তার পকেটে থাকা ৪ হাজার ৫০ টাকা জোর করে কেড়ে নেয়। মোঃ সুমন আলীর এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে রাজপাড়া থানায় একটি নিয়মিত মামলা রুজু হয়।

অভিযান পরিচালনা করেন রাজপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মাজহারুল ইসলামের নেতৃত্বে এসআই মোঃ শাহিন আকতার, এসআই কাজল কুমার নন্দী ও তাদের দল।

সহযোগি অজ্ঞাতনামা আসামীদের নাম ঠিকানা সংগ্রহপূর্বক গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে এবং গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

মতিহার বার্তা / ইএবি

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply