শিরোনাম :
গোদাগাড়ীতে ১০লাখ টাকার হেরোইন-সহ ৩জন মাদক কারবারী গ্রেফতার নগরীর তালাইমারীতে গাঁজা কারকারী মল্লিক গ্রেফতার রাজশাহীতে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু রিভার সিটি নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রুয়েটকে স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রুপান্তর করতে হলে সকল ক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা জরুরী চিপস্ খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ৬ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ চেষ্টা: আসামি নাইম গ্রেফতার এইচএসসি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে আরএমপি’র নোটিশ জারি তানোরে ক্লুলেস হত্যা মামলার পলাতক আসামি ইকবাল গ্রেফতার কৃষিতে বির্পযয়ের আশঙ্কা তানোরে চোরাপথে আশা মানহীন সারে বাজার সয়লাব বাঘায় বাবুল হত্যা মামলায় চেয়ারম্যানসহ ৭ জনকে রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ সিংড়ায় ক্যান্সারে আক্রান্ত ২২ ব্যক্তির মাঝে চেক বিতরণ
রাজশাহীতে টেন্ডার ছাড়ায় গোরস্থানের গাছ কাটার অভিযোগ

রাজশাহীতে টেন্ডার ছাড়ায় গোরস্থানের গাছ কাটার অভিযোগ

রাজশাহীতে টেন্ডার ছাড়ায় গোস্থানের গাছ কাটার অভিযোগ
ডাঁসমারীর বাড়ির সামনে দাড়িয়ে আছেন আজাদ ইনসেটে গাছের পালা

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী নগরীতে গোরস্থানের গাছ কাটার অভিযোগ, ২৯ নং ওয়ার্ড এর ড্রেন লেবার আজাদের বিরুদ্ধে।

গত (১ ফেব্রুয়ারি) মঙ্গলবার দুপুরে সজেমিনে গিয়ে দেখা যায়, ডাঁসমারী ফুডবল মাঠের পশ্চিম প্রান্তে আজাদের বাড়ির সামনে গাছ গুলি পালা লাগিয়ে রেখেছেন।

এক প্রান্তে খড়ি আকারে ফাড়ায় করছে কর্মীরা। অন্যদিকে মোটা গুড়ি ভ্যানে করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ‘স’ মিলে।

ভ্যানে করে ‘স’ মিলে নেয়া হচ্ছে গোরস্থানের গাছ।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন দায়িত্ব গ্রহণের পর নগরীর প্রতিটি গোরস্থানসমূহের উন্নয়নে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।

ইতিমধ্যে নগরীর সকল ওয়ার্ডের গোরস্থানসমূহের মাটি ভরাট, ওয়াকওয়ে নির্মাণ, বাউন্ডারী ওয়াল নির্মাণ ও সৌন্দর্য্যবর্ধন, ওজু খানা নির্মাণ ও জানাজা শেড নির্মাণ করার কাজ শুরু হয়েছে।

ডাঁসমারী গোরস্থান সংলগ্ন স্থানীয়রা জানান, প্রায় ১০ দিনে থেকে এক এক করে মেহেগুনি, শিশু, ডাব ও কদম গাছ কেটে নিয়ে গেছে আজাদ।

এ পর্যন্ত মোট ৮টি গাছ কেটে নিজের বাড়ির সামনে পালা লাগিয়েছেন তিনি। পরে খড়ি ফাড়ায় করে ও মোটা গুঁড়ি গুলি বিশ্ববিদ্যালয় মেইন গেটের সামনে একটি “স” মিলে বিক্রি করছেন আজাদ। শুধু আজাদ একাই এ গাছ কাটার জড়িত নন তার সাথে স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালী লোকজনও রয়েছে বলে জানান তারা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক স্থানীয়রা জানান, খুব কৌশলে গাছ গুলি কাটা হচ্ছে। গোস্থানে ভরাটের কাজ অব্যহত থাকায় সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে গাছ কাটার সাথে সাথে গোড়ায় ভরাট করে দিচ্ছেন তারা। এতে করে গাছের কোনো অস্তিত্ব পাওয়া যাবেনা।

এভাবে গোরস্থানে থাকা মেহগুনি, শিশু, কদম ও ডাব গাছ কেটে নিয়ে গেছে তারা। গাছ কাটার বিষয়টি স্বীকার করে অভিযুক্ত আজাদ বলেন, গোরস্থানের ভরাট কাজে সমস্যা হওয়ায় গাছগুলো কাটার সিদ্ধান্ত হয়।, আমি ঠিকাদারের অনুমতি নিয়ে মোট ৪টি গাছ কেটেছি।

গোরস্থানের বাউন্ডারী ওয়াল নির্মানকারী প্রতিষ্ঠানের ঠিকাদার তাপস জানান, আমি গাছ কাটার অনুমতি দিতেই পারিনা। এছাড়া আজাদ নামের কোনো লোক আমার সাইডে কাজ করেনা। এদিকে তাপসের ম্যানেজার মাসুম জানান, ওয়াল নির্মানের ক্ষেত্রে কয়েকটি ডাব গাছ কাটার প্রয়োজন হয়। একারণে আজাদকে শুধু ডাবগাছ কাটতে বলা হয়েছে। এছাড়া গাছ কাটার বিষয়ে আমরা অফিসকে অবগত করেছি।

অন্যদিকে সিডিউল অনুযায়ী এক নম্বর ইট দিয়ে কাজ করার কথা থাকলেও ঠিকাদার ২ নং ইট দিয়ে কাজ করছেন বলে নিজেই প্রতিবেদককে স্বীকার করে বলেন। ঠিকাদার তাপস বলেন, রাস্তা সোলিং করার জন্য ২ নং ইট ব্যবহার করা হচ্ছে। এছাড়া ওয়াল নির্মান হচ্ছে অটো ভাটার ইট দিয়ে। তবে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, অটো ভাটার সি গ্রেট ইট গোরস্থানে পালা লাগিয়ে রেখেছেন ঠিকাদার।

গোরস্থানে পালা দিয়ে রাখা হযেছে ২ নং ইট

গাছ কাটার বিষয়ে ২৯ নং ওয়ার্ড  কাউন্সিলর  ও খোজাপুর এবং ডাঁসমারী গোরস্থানের আহবায়ক মো. শাহীন বলেন, বাউন্ডারী ওয়াল ও ভরাট ফেলার কারণে কিছু গাছ কাটার প্রয়োজন হয়ে পড়ে। একারণে গোরস্থানে থাকা অকেজো গাছ ও ডাব গাছ কাটা হয়েছে। তবে বিষয়টি রাসিকের প্রকৌশলী জানেন।

মতিহার বার্তা / ইএবি

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply