শিরোনাম :
প্রেমিকার বাড়ির সামনে বিষপানে প্রেমিকের মৃত্যু; বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য ‘শাড়ি ক্যানসার’ কেন হয়? তার উপসর্গই বা কী? জানালেন চিকিৎসক ডায়াবেটিকেরাও ভাত খেতে পারেন, তবে মানতে হবে কিছু নিয়ম মল্লিকার সঙ্গে চুমু বিতর্ক, মুখ দেখাদেখি বন্ধ কুড়ি বছর, সাক্ষাৎ পেয়ে কী করলেন ইমরান? ক্যাটরিনার জন্যই সলমনের সঙ্গে সম্পর্কে দূরত্ব, ইদে স্বামীকে নিয়ে ভাইজানের বাড়িতে আলিয়া! রাজশাহী মহানগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ২৬ ১৬ মাসের মেয়েকে বাড়িতে একা রেখে ছুটি কাটাতে যান মা, না খেয়ে, জল না পেয়ে মৃত্যু! সাজা যাবজ্জীবন রাজশাহীতে ট্রাকে টোল আদায়ের নামে চাঁদাবাজি, আটক ২ পুঠিয়ায় পুলিশের উপর হামলার অভিযোগে গ্রেফতার ৩ ঈদের সাথে যুক্ত হওয়া নববর্ষের উচ্ছ্বাসে বিনোদন স্পট পরিপূর্ণ
মির্জা ফখরুলের টালবাহানা ভবিষ্যৎ নেতৃত্বকে চ্যালেঞ্জ করার সমতুল্য বলে মনে করেন গয়েশ্বর চন্দ্র

মির্জা ফখরুলের টালবাহানা ভবিষ্যৎ নেতৃত্বকে চ্যালেঞ্জ করার সমতুল্য বলে মনে করেন গয়েশ্বর চন্দ্র

মতিহার বার্তা ডেস্ক : একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী বিএনপি ৫ সদস্য শপথ নিলেও এখন পর্যন্ত শপথ নেননি দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। জানা গেছে, বেগম জিয়ার প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেই তিনি তার আসন থেকে শপথ নিতে চান না। তবে বিস্তারিত আলোচনা করে শপথ নেয়ার ইঙ্গিত দিয়ে স্পিকারের কাছে সময় চেয়ে চিঠি দিয়েছেন তিনি।

জানা গেছে, শপথ গ্রহণ নিয়ে যে লুকোচুরি শুরু হয়েছে তাতে বিভ্রান্তি ও অসন্তোষ সৃষ্টি হয়েছে বিএনপির রাজনীতিতে। কোন শর্তে ৫ জন শপথ নিলেন এবং মির্জা ফখরুল কালক্ষেপণ করছেন, সেটি নিয়েও চলছে নানা গুঞ্জন ও সমালোচনা। এদিকে মির্জা ফখরুলের শপথ নিয়ে টালবাহানায় খোলামেলা সমালোচনা করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। বিএনপির ভারত পন্থী এই নেতা মনে করেন, দলীয় নেতৃত্বকে সম্মান করে হলেও অচিরেই শপথ নিতে হবে মির্জা ফখরুলকে।

এই বিষয়ে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, দলীয় সিদ্ধান্ত হলে সকলেই একযোগে শপথ নিতেন। কিন্তু ফখরুল সাহেব কেন শপথ নিয়ে কালক্ষেপণ করছেন, সেটি আমার কাছে বোধগম্য নয়। দলীয় সিদ্ধান্ত সকলকে মানতে হবে। মহাসচিব হলেই আপনার জন্য দলের নিয়ম-কানুন আলাদা হবে, বিষয়টি কিন্তু এমন নয়।

তিনি আরো বলেন, গুঞ্জন শুনছি-বেগম জিয়াকে সম্মান করে তার আসন থেকে নির্বাচন করায় তার বদলে শপথ নিতে চান না মহাসচিব। এটি করলে নাকি বেগম জিয়াকে অসম্মান করা হবে। এসব আবেগ নিয়ে রাজনীতি চলে না। নাচতে নেমে ঘোমটা নিয়ে টানাটানি করলে তো চলবে না। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান যদি নির্দেশ দেন তবে, সেই নির্দেশনা অক্ষরে অক্ষরে পালন করা মহাসচিবের দায়িত্ব। তিনি শপথ না নেয়ার প্রত্যক্ষভাবে বিএনপির ভবিষ্যৎ নেতৃত্বকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন। এটি ভালো না।সূত্র: বাংলা নিউজ ব্যাংক

মতিহার বার্তা ডট কম – ০১ মে, ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply