যে প্রলোভনে পড়ে সংসদ বর্জন করলেন মির্জা ফখরুল!

যে প্রলোভনে পড়ে সংসদ বর্জন করলেন মির্জা ফখরুল!

মতিহার বার্তা ডেস্ক : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির বিজয়ী ৫ নেতা শপথ নিলেও দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শপথ নেয়া থেকে বিরত থেকেছেন। দলীয় সিদ্ধান্তে বাকিরা শপথ নিলেও তিনি কেন সিদ্ধান্ত উপেক্ষা সংসদে গেলেন না, তা নিয়ে দলটির ভেতরে চলছে নানা গুঞ্জন ও সমালোচনা। কার নির্দেশে এবং কোন উদ্দেশ্যে তিনি সংসদ বর্জন করলেন সেটি নিয়েও সৃষ্টি হয়েছে ধোঁয়াশা।

তবে বিভিন্ন সূত্রের বরাতে জানা গেছে, তারেক রহমানের বিশেষ নির্দেশ এবং আর্থিক প্রলোভনে পড়ে শপথ নেননি মির্জা ফখরুল। কারণ মির্জা ফখরুল শপথ নিলে তিনি সংসদ নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়বেন। সেক্ষেত্রে দলের রাজনৈতিক কর্মসূচি স্তিমিত হয়ে পড়তে পারে- এমন দুর্ভাবনা থেকেই তাকে সংসদে যেতে দেয়া হয়নি। এছাড়া আগামী জাতীয় কাউন্সিলে আরেক মেয়াদে মির্জা ফখরুলকে মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব পালনের আশ্বাস দিয়েছেন তারেক।

এরপরেও মির্জা ফখরুল গণতন্ত্র, জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতা এবং সংসদে বিএনপির প্রতিনিধিত্ব বাড়ানোর পক্ষে কথা বলে সংসদে যাওয়ার তীব্র ইচ্ছা পোষণ করেন। মির্জা ফখরুলকে যুক্তি দিয়ে কোনভাবেই নিবৃত করতে না পারায় ১০ কোটি টাকার প্রলোভন দেখান তারেক। অর্থ-বিত্ত ও পদের বিষয়টি মাথায় রেখে তাই শান্ত শিশুর মতো তারেক রহমানের নির্দেশ মেনে সংসদে যাননি মির্জা ফখরুল।

লন্ডন বিএনপির একটি সূত্র বলছে, দলে ভারসাম্য বজায় রাখতে মির্জা ফখরুলকে শপথ নিতে দেয়া হয়নি। এছাড়া তিনি যেখান নির্বাচিত হয়েছেন সেটি আসলে বেগম জিয়ার জন্য নির্ধারিত আসন। বেগম জিয়া জেলে আর তার আসন থেকে বিজয়ী নেতা সংসদ যাবেন, এটি তার সম্মানের জন্য চরম হানিকর। বেগম জিয়ার সম্মান রক্ষার্থে বিভিন্ন উপায়ে মির্জা ফখরুলকে নিবৃত করা হয়েছে। বড় কিছু অর্জন করতে হলে তো বড় মাপের বিসর্জন দিতে হয়- সেই আশায় শেষপর্যন্ত সংসদে যাননি মির্জা ফখরুল।সূত্র: বাংলা নিউজ ব্যাংক

মতিহার বার্তা ডট কম – ০৬ মে, ২০১৯

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply